ভবানীপুর উপনির্বাচন: আমাকে ভোট না দিলে মুখ্যমন্ত্রী অন্য কেউ হবে! মমতার মন্তব্যে জল্পনা তুঙ্গে - presscard | প্রেসকার্ড | press card news |

Post Top Ad

Post Top Ad

Thursday, 23 September 2021

ভবানীপুর উপনির্বাচন: আমাকে ভোট না দিলে মুখ্যমন্ত্রী অন্য কেউ হবে! মমতার মন্তব্যে জল্পনা তুঙ্গে


প্রেসকার্ড নিউজ ডেস্ক: 'আমাকে ভোট না দিলে মুখ্যমন্ত্রী অন্য কেউ হবে!' তাই ভবানীপুর উপনির্বাচনে তার সমর্থকদের বৃষ্টি হলেও ভোট দিতে উৎসাহিত করলেন তৃণমূল প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৩০শে সেপ্টেম্বর ভোটের দিন নিম্ম চাপের প্রভাবে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। 


দিদি তো জিতবেনই। এমন ভাবনা নিয়ে যদি ভোটাররা বসে থাকে তাহলে হারার সম্ভবনা থাকবে। এ প্রসঙ্গে, বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাদের আত্মতৃপ্ত না হওয়ার কথা তুলে ধরেন। তার নির্বাচনী বিজয় নিশ্চিত নয়, উল্লেখ করে তিনি তার সমর্থকদের বলেন, বৃষ্টি থাকলেও ভোট দিতে যেতে। তিনি জিতে গেলে উন্নয়নের জন্য তিনি থাকবেন বলে আশ্বাস দিয়ে তিনি বলেন, নন্দীগ্রাম থেকে হেরে যাওয়ার পর তিনি ভবানীপুর থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এটা ভাগ্যের বিষয়। 


মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে, বিজেপি ভবানীপুরে তৃণমূল প্রধানের সঙ্গে লড়াই করার জন্য তার বঙ্গীয় যুব শাখার সহ -সভাপতি - প্রিয়াঙ্কা তিব্রেওয়ালকে বেছে নিয়েছে। সেখানে জন্মগ্রহণ ও বেড়ে ওঠার জন্য নিজেকে 'ভবানীপুরের মেয়ে' হিসেবে অভিষিক্ত করে তিব্রেওয়াল বলেছিলেন, "ভবানীপুর তার নিজের মেয়েকেই চায়", একইভাবে মমতা বলেছিলেন, "বাংলা তার নিজের মেয়েকেই চায়"। তিব্রে‌ওয়াল ২০১৫ সালে কলকাতা পুরসভা ভোটে হেরেছিলেন এবং ২০২১ সালে স্বর্ণ কমল সাহার কাছে ৫৪ হাজারের বেশি ভোটে পরাজিত হয়েছিলেন। তার প্রচেষ্টায় বাংলায় ভোট-পরবর্তী সহিংসতার সময় কথিত খুন ও ধর্ষণের ব্যাপারে সিবিআই তদন্ত শুরু হয়। 


নির্বাচন কমিশন ঘোষণা করেছে যে, রাজ্য সরকারের বিশেষ অনুরোধে ৩০ সেপ্টেম্বর শুধুমাত্র ভবানীপুরে উপনির্বাচন হবে। তাছাড়াও সামশেরগঞ্জ এবং জঙ্গিপুর এবং ওড়িশার পিপলিতেও নির্বাচন হবে, যেখানে মে মাসে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মৃত্যুর কারণে নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল। ভবানীপুর - যা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্বাচনী এলাকা -এই ভবানীপুর আসনটি জিতে পরবর্তীকালে বিধায়ক শোভনদেব চ্যাটার্জী পদত্যাগ করার পর বর্তমানে এটি শূন্য। যেহেতু মমতা নন্দীগ্রাম থেকে তার নির্বাচনী যুদ্ধে বিজেপির শুভেন্দু অধিকারীর কাছে পরাজিত হয়েছিলেন, তাই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী থাকার জন্য তাকে ৫ নভেম্বরের মধ্যে পুনরায় নির্বাচিত হতে হবে। এই নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হবে অক্টোবর মাসের তিন তারিখ ।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad