'মেয়েরা লাল্লা, রসগুল্লা বলে', প্রিন্সিপালকে চিঠি লিখে নালিশ ছাত্রদের - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 10 May 2022

'মেয়েরা লাল্লা, রসগুল্লা বলে', প্রিন্সিপালকে চিঠি লিখে নালিশ ছাত্রদের


অনেক সময় ক্লাসে মেয়ে ও ছেলেদের মধ্যে তর্ক-বিতর্ক হলে বিষয়টি শিক্ষক থেকে প্রিন্সিপাল পর্যন্ত পৌঁছে যায়। এটি স্কুলের ক্লাসে খুব সাধারণ, তবে একটি চিঠি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে যেখানে কিছু ছাত্র প্রিন্সিপালকে লিখেছে এবং দাবী করেছে যে, তাদের ভুল নামে ডাকার জন্য ছাত্রীদের তার কাছে ক্ষমা চাইতে বলতে। বলা হচ্ছে ভাইরাল হওয়া এই চিঠির ছবি উত্তরপ্রদেশের আউরাইয়া জেলার। এটি আউরাইয়া জেলার তাইপুরে অবস্থিত জওহর নবোদয় বিদ্যালয়ের ঘটনা। উল্লেখ্য, এই ভাইরাল চিঠির সত্যতা যাচাই করেনি প্রেসকার্ড নিউজ। 


সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া এই চিঠিতে দেখা যায়, প্রিন্সিপালকে লেখা চিঠির বিষয়ে শিক্ষার্থীরা লিখেছেন, 'সপ্তম (এ) শ্রেণির মেয়েরা ছেলেদের কাছে ক্ষমা চাইবে'। এরপর শিক্ষার্থীরা বিস্তারিত লিখেছে, 'স্যার, বিনীত অনুরোধ আমরা সপ্তম (এ) শ্রেণির ছাত্র। মেয়েরা আমাদের সাথে ভুল কথা বলে যেমন- লাল্লা, পাগল, নিজের পজিশন দেখে থাকো। আর ছেলেদের নাম নষ্ট করে। রমেশ (নাম পরিবর্তিত) কে দামার আর দীনেশ (নাম পরিবর্তিত) কে রসগুল্লা, লাল্লার মত থাকো। মেয়েরা ক্লাসে শব্দ করে গান গায় এবং ডায়ালগ বাজি করে। নানান আওয়াজ করে।'



তাদের চিঠিতে শিক্ষার্থীরা ক্লাসের মেয়েদের নামও লিখেছে। শেষ পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা লিখেছে, 'সপ্তম (এ) শ্রেণীতে যে সব মেয়েরা আওয়াজ করেছিল তাদের নাম-' এই চিঠিটি এখন ইন্টারনেটে ভীষণভাবে ভাইরাল হচ্ছে। এই চিঠির ছবি পড়ে মানুষ নানা ধরনের প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন। একজন নেটাগরিক লিখেছেন, 'লে ভাইয়া ওমফোহ।' কিছু মানুষ আবার এই চিঠি বিশ্বাস করছে না। আরেক নেট নাগরিক লিখেছেন, 'হাতের লেখা সপ্তম ছেলের বলে মনে হচ্ছে না।' 

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad