'করোনা নিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না', বাবা রামদেবকে তীব্র ভর্ৎসনা হাইকোর্টের - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 17 August 2022

'করোনা নিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না', বাবা রামদেবকে তীব্র ভর্ৎসনা হাইকোর্টের


অ্যালোপ্যাথি এবং কোভিড -১৯-এর চিকিৎসা নিয়ে যোগগুরু বাবা রামদেবের দেওয়া বিবৃতির তীব্র ভর্ৎসনা দিল্লী হাইকোর্টের। আদালত বলেছে, মানুষকে বিভ্রান্ত করবেন না। পাশাপাশি আদালত এও বলেছে যে, রামদেবের বক্তব্যে আন্তর্জাতিক নেতাদের নাম নেওয়া বিদেশের সঙ্গে আমাদের সুসম্পর্ককে প্রভাবিত করতে পারে। আদালত আরও বলে, 'যা সরকারি তথ্য, তার বেশি কিছু বলবেন না।'


উল্লেখ্য, অ্যালোপ্যাথির বিরুদ্ধে যোগগুরু বাবা রামদেবের বক্তব্য নিয়ে দিল্লী হাইকোর্টে পিটিশন দাখিল করেছে বিভিন্ন চিকিৎসক সমিতি। বিচারপতি অনুপ জয়রাম ভম্বানির আদালতে এই বিষয়ে বুধবার শুনানি হয়। এ সময় আদালত বলে, আয়ুর্বেদ একটি প্রাচীন চিকিৎসাব্যবস্থা, যার ভালো নাম নষ্ট হয়ে যাওয়ার ব্যাপারে আমি চিন্তিত। আয়ুর্বেদ একটি স্বীকৃত, প্রাচীন চিকিৎসা পদ্ধতি। এর নামের কোনও ক্ষতি করবেন না। রামদেব তার বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক নেতাদের নাম দিয়েছেন, যা বিদেশের সঙ্গে আমাদের সুসম্পর্ককে প্রভাবিত করতে পারে।'


মিডিয়া রিপোর্ট অনুসারে, রামদেব সম্প্রতি এক বিবৃতিতে বলেন যে, "টিকা দেওয়া সত্ত্বেও, মার্কিন রাষ্ট্রপতি জো বাগডেনের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে এবং এটি চিকিৎসা বিজ্ঞানের ব্যর্থতা।" এই বক্তব্যের কড়া তিরস্কার করেছে দিল্লী হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে এ ধরনের বক্তব্য দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত না করারও নির্দেশ দিয়েছে আদালত। পাশাপাশি অ্যান্টি-ভ্যাক্সারদের বিষয়ে আদালত বলেন, আমি ভ্যাকসিন নিতে চাই না বলাটা এক কথা, কিন্তু এটা বলা আরেক কথা যে, 'দেখুন, ভ্যাকসিনের কথা ভুলে যান, এটা অকেজো, কিন্তু এটা নিয়ে নাও।'


আদালত আরও বলেছে যে রামদেবের অনুগামী এবং শিষ্যরা এবং যারা তাকে বিশ্বাস করেন তাদের স্বাগত জানাই, তবে সরকারি কিছুর চেয়ে বেশি কথা বলে জনসাধারণকে বিভ্রান্ত করবেন না। বিষয়টি বিচারাধীন না হওয়া পর্যন্ত তিনি করোনিল সম্পর্কে আর কোনও বিবৃতি দেওয়া বন্ধ করবেন কিনা?- তাও জিজ্ঞাসা করে আদালত। তবে রামদেবের আইনজীবী এ ধরনের কোনও বক্তব্য দিতে রাজি হননি।


আদালতে রামদেবের আইনজীবী বাদীর মানহানি এবং এই মকদ্দমাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে অভিহিত করেছেন। রামদেবের আইনজীবীর এই বিতর্কে যে, বিষয়টিকে কংগ্রেস বনাম বিজেপি করা হচ্ছে, আদালত বলেছে যে, আদালতে রাজনীতির কোনও স্থান নেই। একই সময়ে, প্রবীণ আইনজীবী অখিল সিবাল বুধবার করোনাভাইরাস মহামারী চলাকালীন অ্যালোপ্যাথির বিরুদ্ধে তার বিবৃতির জন্য রামদেবের বিরুদ্ধে ডাক্তার সমিতির একটি গ্রুপের পক্ষে বিচারে যুক্তি সম্পন্ন করেছেন। আগামী সপ্তাহেও মামলার শুনানি চলবে আদালতে।


উল্লেখ্য, বিভিন্ন ডাক্তার সমিতির দায়ের করা মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে যে, রামদেব কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত বহু লোকের মৃত্যুর জন্য 'অ্যালোপ্যাথি' দায়ী বলে জনসাধারণকে বিভ্রান্ত ও ভুলভাবে উপস্থাপন করছেন। একই সঙ্গে হাজার হাজার রোগীর মৃত্যু ঘটাচ্ছেন অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসকরা। বিশেষ বিষয় হল রামদেব একজন অত্যন্ত প্রভাবশালী ব্যক্তি এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় তার লক্ষ লক্ষ ফলোয়ার রয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad