রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমালে যত উপকার - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday 17 November 2023

রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমালে যত উপকার

 


রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমালে যত উপকার 




প্রেসকার্ড নিউজ লাইফস্টাইল ডেস্ক, ১৭ নভেম্বর: অনেকেই আছেন রাত জেগে থাকেন বা অনেক দেরি করে ঘুমোতে যান। কিন্তু রাতে ভালো এবং পর্যাপ্ত ঘুম স্বাস্থ্যের জন্য অবিশ্বাস্যভাবে গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আমাদের শরীরকে রিচার্জ করতে সাহায্য করে খুব আর পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম, সারাদিন আপনাকে কাজের জন্য প্রস্তুত রাখে। স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া, ব্যায়াম যেমন সুস্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, ঠিক তেমনিই হচ্ছে রাতের ঘুম। তবে বর্তমান সময়ে মানুষের ঘুমের মাত্রা এবং মান আগের তুলনায় অনেকটাই কমে গেছে। আর এর পেছনের অন্যতম কারণ হচ্ছে ডিজিটাল ডিভাইসের ব্যবহার বৃদ্ধি পাওয়া। কিন্তু রাতে ভালো ঘুম আমাদের শরীর সুস্থ রাখতে এবং রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করে। প্রতিদিন রাতে তাড়াতাড়ি এবং ভালো ঘুমানোর রয়েছে অনেক উপকারিতা, যেমন -


কর্মক্ষমতা ও মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়ায়

জ্ঞান, একাগ্রতা উৎপাদনশীলতা, কর্মক্ষমতা ইত্যাদি নির্ভর করে মস্তিষ্কের কার্যকারিতার ওপর। আর এর সবই ভালো ঘুমের মাধ্যমে ইতিবাচক ভাবে প্রভাবিত হয়। একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ঘুমের ঘাটতি মস্তিষ্কের কার্যকারিতার কিছু দিকে অ্যালকোহলের নেশার মতো প্রভাব ফেলতে পারে। এছাড়াও অপর একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ভালো ঘুম সমস্যার সমাধানের দক্ষতা বৃদ্ধিতে এবং স্মৃতিশক্তি উন্নত করতে সহায়ক। 


স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায়

ঘুমের মান ও সময়কাল স্বাস্থ্যের ওপর অনেক প্রভাব ফেলে। পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবে রক্তচাপ এবং হার্টের কার্যকারিতা খারাপ হয়। এর ফলে স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, রাতে যারা পর্যাপ্ত ঘুমায় না, তাদের হৃদরোগ বা স্ট্রোকের থেকে অনেকটাই বেড়ে যায়। 


ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়

রাতে পর্যাপ্ত ঘুম ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমাতে পারে। কারণ রাতে কম ঘুম হলে তা রক্তের শর্করাকে প্রভাবিত করে এবং ইনসুলিন সংবেদনশীলতা হ্রাস করে। এর ফলে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ে। যুবদের নিয়ে একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, রাতে টানা ৬ থেকে ৪ ঘন্টা করে ঘুমানোর ফলে তাদের ডায়াবেটিসের উপসর্গ দেখা দিয়েছে। 



রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি

পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক আর ঘুমের ঘাটতি আপনাকে দুর্বল করে দিতে পারে। কয়েকজন মানুষের উপর গবেষণায় দেখা গিয়েছে, যারা কম ঘুমান তাদের অন্যদের তুলনায় সর্দি লাগার সম্ভাবনা প্রায় তিনগুণ বেশি থাকে। 


হতাশা কমায় 

মানসিক স্বাস্থ্যের মতোই ঘুমের ওপর নির্ভর করে বিষন্নতা ও হতাশা। রাতে ঘুম ভালো হলে, তা আপনার হতাশা ও বিষন্নতা কমাতে পারে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad