ছটের প্রথম দিনে তৈরি করা হয় কদ্দু-ভাত, জেনে নিন কীভাবে বানাবেন ঐতিহ্যবাহী এই পদ - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday 14 November 2023

ছটের প্রথম দিনে তৈরি করা হয় কদ্দু-ভাত, জেনে নিন কীভাবে বানাবেন ঐতিহ্যবাহী এই পদ


ছটের প্রথম দিনে তৈরি করা হয় কদ্দু-ভাত, জেনে নিন কীভাবে বানাবেন ঐতিহ্যবাহী এই পদ




প্রেসকার্ড নিউজ লাইফস্টাইল ডেস্ক, ১৪ নভেম্বর: বিহারে ছটের সময় এক আলাদাই উৎসাহ দেখা যায়।  বলা হয়ে থাকে যে, ছট শুধু একটি উৎসব নয় বরং একটি বিশ্বাস ও আবেগ যার সাথে মানুষ গভীরভাবে যুক্ত। তিন দিনব্যাপী এই উৎসব শুক্রবার, ১৭ নভেম্বরে শুরু হবে এবং সোমবার, ২০ নভেম্বর শেষ হবে। ছট উৎসব শুধু একটি উদযাপন নয়, এটি প্রকৃতির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশের একটি উপায়, নারী-পুরুষ উভয়েই এই উপবাস পালন করে, ছট শুরু হয় স্নানের মাধ্যমে এবং এই দিনে বিশেষ কদ্দু-ভাত বা কুমড়ো-ভাত তৈরি করা হয়। 


ঠেকুয়া সম্পর্কে সকলেই জানেন, যা ছট উৎসবে দেওয়া হয় এবং লোকেরা এটি অত্যন্ত উত্সাহের সাথে খায়। এই সময়ের মধ্যে তৈরি কদ্দু-ভাতও অন্যতম জনপ্রিয় পদ। নাহায়ে খায়ের দিন ছোলার ডাল, আরভা ভাত এবং কদ্দু সবজি খেয়েই ছট উপবাস শুরু হয়। তাহলে চলুন জেনে নেই ঐতিহ্যবাহী এই পদটি কীভাবে তৈরি করা হয়।


 কদ্দু-ভাত তৈরি করতে এই উপাদানগুলির প্রয়োজন হবে

লাউ বিহারে কুমড়া নামেও পরিচিত। তাই কুমড়ো-ভাত তৈরির জন্য প্রয়োজন হবে আধা কেজি লাউ, আধা কাপ ছোলা ডাল, স্বাদ অনুযায়ী বিটলবণ। এছাড়াও লাগবে আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, প্রায় এক কাপ জল, দুটি কাঁচা লঙ্কা কুচি। এর সাথে আপনার পছন্দের চাল।


ফোঁড়নের জন্য উপকরণ

আধা চা-চামচ জিরা, এক-চতুর্থাংশ চা-চামচ হিং, এক থেকে দুই চা-চামচ ঘি, এক থেকে দুইটি শুকনো লঙ্কা, দুই থেকে তিনটি তেজপাতা।


 কদ্দু-ভাত তৈরির পদ্ধতি 

রান্নার আগে চাল ভালো করে ধুয়ে জল দিয়ে আধা ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। এবার একটি তলা ভারী ও মোটা পাত্রে চালের দ্বিগুণ পরিমাণ জল আঁচে রাখুন। অর্থাৎ এক বাটি চাল থাকলে দুই বাটি জল ফুটানোর জন্য রাখুন। জল ফুটে উঠলে তাতে ভেজানো চাল, এক চামচ ঘি ও সামান্য বিট লবণ দিয়ে দিন। এবার ঢেকে মাঝারি আঁচে রান্না করুন, জল শুকাতে শুরু করলে আঁচ কমিয়ে দিন।  কিছুক্ষণের মধ্যেই ভাত তৈরি হয়ে যাবে।


কীভাবে তৈরি করবেন কুমড়ো এবং ছোলা ডালের তরকারি 

প্রথমে কুকারে এক কাপ জল দিয়ে লাউ ও ছোলা ডাল সিদ্ধ করে তাতে হলুদ গুঁড়ো ও বিট লবণ দিন। সামান্য ঘিও দিতে পারেন।  এ কারণে কুকার থেকে জল বের হয় না। এক থেকে দুই সিটি দেওয়ার পর গ্যাস বন্ধ করে দেখুন কুমড়ো ও ডাল ঠিকমতো সেদ্ধ হয়েছে কিনা। সেদ্ধ না হলে আর একটি সিটি দিয়ে নামিয়ে রাখুন।


ফোঁড়ন দেওয়ার পদ্ধতি

একটি প্যানে ঘি বা তেল গরম করুন, জিরা দিন এবং কড়ান, তারপরে তেজপাতা, কাটা কাঁচা লঙ্কা, শুকনো লঙ্কা এবং তারপর হিং দিন। এতে এক চামচ আদার পেস্টও দিতে পারেন। এবার দুই মিনিট নাড়ুন এবং তাতে সেদ্ধ ছোলার ডাল ও লাউ দিন। ভালো ভাবে মিশে না যাওয়া পর্যন্ত রান্না করুন। ঘন হয়ে গেলেই নামিয়ে নিন। এবারে আগে থেকে তৈরি ভাত ও এই তরকারি একটি থালায় নামিয়ে পরিবেশন করুন 'কদ্দু-ভাত'।   

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad