সাবধান! আপনার এই ভুলগুলো কমিয়ে দেয় স্মার্টফোনের আয়ু - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Monday, 23 May 2022

সাবধান! আপনার এই ভুলগুলো কমিয়ে দেয় স্মার্টফোনের আয়ু

 


আজকাল খাওয়া-দাওয়ার চাহিদার পরে একজন মানুষের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হল স্মার্টফোন। গত কয়েক বছরে স্মার্টফোনের প্রতি মানুষের নির্ভরতা অনেক বেড়েছে। লোকেরা কেনাকাটা থেকে পড়াশুনা এবং অন্যান্য কাজে এটি ব্যবহার করে, বেশি অ্যাপ ব্যবহার এবং আরও অনেক কারণে স্মার্টফোনের কার্যক্ষমতাও প্রভাবিত হয়। যদিও ব্যবহারকারীরা এটিতে খুব বেশি মনোযোগ দেয় না, তবে আপনার জন্য এটি জানা গুরুত্বপূর্ণ যে শুধুমাত্র আপনার কিছু ছোট ভুল স্মার্টফোনের আয়ু কমিয়ে দেয়।আসুন আমরা আপনাকে এমন কিছু ভুলের কথা বলি যা আপনার করা উচিত নয়।



সাধারণত ফোন ব্যবহার করার সময়, আমাদের প্রয়োজন এবং সুবিধা অনুযায়ী, কিছু না ভেবে আমরা এমন অনেক কাজ করি যা আমাদের করা উচিত নয়। নিচে উল্লেখিত ভুলগুলো করবেন না।



আপনি যদি একজন অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী হন তবে আপনি প্লে স্টোরের সাথে পরিচিত হবেন। এখান থেকে আপনি অ্যাপটি ইন্সটল করুন। Google তার প্ল্যাটফর্মে শুধুমাত্র সেই অ্যাপগুলিকে স্থান দেয় যেগুলি আইনি এবং নিরাপদ৷ এমন পরিস্থিতিতে, প্লে স্টোর থেকে বিভিন্ন APK ফরম্যাটে ওয়েবসাইটে অনেক অ্যাপ পাওয়া যায়। এমনকি মানুষ কিছু চিন্তা ছাড়াই তাদের ইনস্টল করে । কিন্তু আপনার এটা এড়ানো উচিত। এই ধরনের অ্যাপে ম্যালওয়্যার এবং ভাইরাস থাকে যা শুধু ফোনেরই ক্ষতি করে না বরং আপনার আর্থিক ক্ষতিও করতে পারে। প্লে স্টোর ছাড়া অন্য কোথাও থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করবেন না।


কিছু লোক অর্থ এবং ডেটা বাঁচানোর জন্য বিনামূল্যে Wi-Fi খুঁজছেন। বাইরে Wi-Fi পাওয়ার সাথে সাথে তারা তাদের ডিভাইসটি এতে সংযুক্ত করে, তবে এটি নিরাপদ নয়। এতে আপনার ফোনের ক্ষতি হতে পারে।



প্রতিটি ফোনের চার্জার আলাদা, তবে প্রায়শই লোকেরা তাদের ফোনের চার্জার ছেড়ে অন্য মডেলের চার্জার দিয়ে মোবাইল চার্জ করে। এটি ফোনের আয়ুও কমিয়ে দেয়।


অনেক ব্যবহারকারী মনে করেন অ্যাপ আপডেট করলে ফোনের মেমরি কমে যাবে। এমন পরিস্থিতিতে যেকোন অ্যাপের পুরনো ভার্সনই রাখে। তারা অ্যাপ আপডেটের বিজ্ঞপ্তি উপেক্ষা করে, কিন্তু ফোনের জন্য এটি সত্য নয়। তাতে মোবাইলের আয়ু কমিয়ে দেয়।


মোবাইল কোম্পানিগুলো সময়ে সময়ে তাদের ফোন আপডেট করে থাকে। এ বিষয়ে মোবাইলে বিজ্ঞপ্তিও আসে।কিন্তু বেশিরভাগ ব্যবহারকারী তা উপেক্ষা করে ফোনের সর্বশেষ সংস্করণ অর্থাৎ আপডেটেড অপারেটিং সিস্টেম রাখেন না। এতেও ফোনে সমস্যা হয়।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad