একাধিক বিয়ে নিষিদ্ধ করল তালেবান! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Sunday, 22 May 2022

একাধিক বিয়ে নিষিদ্ধ করল তালেবান!


 তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা সংগঠনের সদস্যদের একাধিক বিয়ে করতে নিষেধ করে একটি আদেশ জারি করেছেন। তিনি এটিকে "অপ্রয়োজনীয় এবং অপব্যয়" বলেছেন। কাবুলের বাখতার নিউজ এজেন্সি এ তথ্য জানিয়েছে। আফগানিস্তান দখলের পর তালেবানরা এই দেশের নাম দেয় আফগানিস্তানের ইসলামিক এমিরেট, যেখানে সবকিছু চলে শরিয়া আইন অনুযায়ী। এই আইনে একজন পুরুষকে চারটি বিয়ের অধিকার দেওয়া হয়েছে। বহুকাল ধরে আফগানিস্তানেও বহুবিবাহের প্রচলন রয়েছে।


কথিত আছে যে আফগান পুরুষরা তাদের প্রথম বিয়ে থেকে সন্তান না হওয়ার কারণে অনেক বিয়ে করে। তবে এখন আখুন্দজতার এই আদেশ তালেবান সদস্যদের জন্য প্রযোজ্য হবে। সে দ্বিতীয়, তৃতীয় বা চতুর্থ বিয়ে করতে পারবে না। আদেশে আরও বলা হয়েছে, আমর-উল-মারুফ মন্ত্রণালয় এই নিয়ম লঙ্ঘনকারীদের চিহ্নিত করবে এবং এ ধরনের ব্যক্তিদের তথ্য সংস্থার নেতৃত্বের কাছে পৌঁছে দেবে। এর আগে ২০২১ সালের জানুয়ারিতে, তালেবান একই ধরনের আদেশ জারি করেছিল। সে সময় তারা দেশের ভবিষ্যৎ নিয়ে তৎকালীন আফগান সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনা করছিলেন।



তালেবানের এই সিদ্ধান্তের পেছনে সংগঠনের ক্রমবর্ধমান দুর্নীতি বলেও মনে করা হচ্ছে। তালেবান সদস্যরা মেয়ের পরিবারকে বিয়ে বা স্ত্রী-সন্তানের যাবতীয় খরচ মেটাতে যৌতুক দিয়ে দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত বলে দেখা গেছে। যার কারণে এখন এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তালেবান নেতৃত্বও বিশ্বাস করে যে বিয়ের অনুষ্ঠানে বড় অঙ্কের অর্থ ব্যয় শত্রু এবং প্রতিপক্ষ এবং দলের সদস্যদের সমালোচনা করার সুযোগ দেয়। এমনকি তালেবানের মধ্যেও একাধিক বিয়ে একটি সাধারণ রীতি। এর সিনিয়র সদস্যদের একাধিক স্ত্রী রয়েছে।


তথ্য অনুযায়ী, সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা মোহাম্মদ ওমরের অন্তত তিনজন স্ত্রী রয়েছে বলে জানা গেছে। তাদের একজন সন্ত্রাসী ওসামা বিন লাদেনের মেয়ে। যিনি আমেরিকায় 9/11 সন্ত্রাসী ঘটনার আগে তালেবান এবং আল-কায়েদার মধ্যে একটি জোট গঠন করেছিলেন। অন্যদিকে, আফগানিস্তানের কথা যদি বলি, এই সময়ে এদেশের অর্থনৈতিক অবস্থা খুবই খারাপ। দেশে মানবিক সংকট চলছে। গত বছরের আগস্টে এখানে ক্ষমতা দখল করে তালেবান। এরপর পশ্চিম সমর্থিত সরকারের পতন হয়। এরপর থেকে দেশে বৈদেশিক সাহায্য আসাও বন্ধ হয়ে যায়।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad