ডিগ্ৰি থাকলেও মেলেনি চাকরি, ভাগ্যের পরিহাসে তন্ময় এখন 'এমএ পাস লটারি ওয়ালা'! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 17 June 2022

ডিগ্ৰি থাকলেও মেলেনি চাকরি, ভাগ্যের পরিহাসে তন্ময় এখন 'এমএ পাস লটারি ওয়ালা'!


কেন্দ্র বা রাজ্য সরকারি চাকরি করে সংসার চালাবেন- দু'চোখ জুড়ে ছিল এমনই স্বপ্ন, হাতে ছিল স্নাতকোত্তরের সার্টিফিকেট। কিন্তু স্বপ্ন আর বাস্তবে পরিণত হয়নি। বর্তমানে লটারি বিক্রি করে জীবন চালাচ্ছেন তন্ময়। তার পরিচয় এখন 'এমএ পাস লটারি ওয়ালা'। 


মুর্শিদাবাদের নওদার সাকোপাড়া এলাকার বাসিন্দা তন্ময় চুনারি। আমতলা বাজার এলাকায় ফুটপাতের ধারে ছোট্ট একটি দোকানে বসে থাকতে দেখা যাবে এই 'এমএ পাস লটারি ওয়ালাকে'। তার দোকানের টেবিলে বড় বড় করে এই নামটাই লেখা রয়েছে। কিন্তু কেন এমন নাম? তন্ময়ের কথায় মনের কোণে জমাট বাঁধা ক্ষোভ ও রক্তক্ষরণ থেকেই এই নামকরণ।


আসলে, খুব ছোট বয়সে বাবাকে হারায় তন্ময়, তখন সে সপ্তম শ্রেণীর পড়ুয়া। তখন পড়াশোনা একপ্রকার লাটে ওঠে। এরপর দাদার প্রচেষ্টায় পড়াশোনা করে একটু একটু করে এগিয়ে যেতে থাকে তন্ময়। দু'চোখে স্বপ্ন ছিল কেন্দ্র বা রাজ্য সরকারি চাকরি পাওয়ার। এমনকি ডিফেন্সে কাজের জন্য প্রচেষ্টাও চালিয়ে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ যেন বিনা মেঘে বজ্রপাত হল তন্ময়ের জীবনে! 


ছয় মাস আগে সংসারের একমাত্র রোজগেরে দাদাকে হারান তিনি। মায়ের চিকিৎসা, সংসারের ন্যূনতম খরচ চালানো- মাথায় যেন আকাশ ভেঙে পড়ল তাঁর। অগত্যা, দাদার এই লটারির ব্যবসাকেই আঁকড়ে ধরে বাস্তবের সঙ্গে লড়াইয়ের পথ খুঁজে নিলেন তবে। কিন্তু হাল ছাড়েননি তন্ময়। লটারি বিক্রির পাশাপাশি গৃহ শিক্ষকতারও কাজ করেন। তন্ময়ের এই অদম্য প্রচেষ্টাকে স্যালুট জানাচ্ছেন স্থানীয়রা। পাশাপাশি তাঁর এই সংগ্ৰাম দেখে পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতিও। 


বাস্তব আর স্বপ্ন পূরণের মাঝে যে দীর্ঘ পথ অতিক্রম করতে হবে, তা প্রতি পদে পদে বুঝতে পারছেন তিনি। তা সত্ত্বেও নিজের লক্ষ্যে পৌঁছাতে অবিরাম লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন 'এমএ পাস লটারি ওয়ালা' ওরফে তন্ময় চুনারি।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad