এইমস-এ চাকরি দেওয়ার অভিযোগ বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের বিরুদ্ধে - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Sunday, 5 June 2022

এইমস-এ চাকরি দেওয়ার অভিযোগ বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের বিরুদ্ধে



 রানাঘাটের লোকসভা সাংসদ জগন্নাথ সরকারের বিরুদ্ধে টাকা দিয়ে কল্যাণী এইমস-এ চাকরি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।  রবিবার সাংবাদিক সম্মেলন করে অভিযোগের প্রতিক্রিয়ায় বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার বলেন, "আমি একটি চাকরি দিয়েছি, আমি যদি একজনকে চাকরি দিতে পারি তবে আমি গর্বিত এবং ভবিষ্যতে আরও দেব।"  বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার বলেন, “আমরা যদি বাংলায় ক্ষমতায় আসি, তবে আমরা প্রত্যেকের জন্য AIMS-এ চাকরির ব্যবস্থা করব।  কারণ তৃণমূলের শাসনে সব শেষ হয়ে যাচ্ছে।  সর্বত্র শুধু দুর্নীতি বিরাজ করছে।  সেটা শিক্ষক নিয়োগের ব্যাপারই হোক বা মনরেগা।"



 বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের বিরুদ্ধে এইমস-এ টাকা দিয়ে চাকরি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।  টাকা নিয়ে চাকরি দেওয়ার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে তৃণমূল কংগ্রেস ও মমতা  সরকারকে তীব্র আক্রমণ করেন তিনি।



সম্প্রতি এইমস-এ গিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকার।  তার সামনেই সেদিন প্রতিবাদ হয়েছিল।  এই উপলক্ষে বিজেপি প্রার্থী তনিমা ভট্টাচার্য অভিযোগ করেছিলেন যে জগন্নাথ সরকার টাকা নিয়ে চাকরি দিয়েছে।  তবে ওই দিন সুভাষ সরকার গাড়ির জানালা তুলে কোনও প্রতিক্রিয়া ছাড়াই চলে যান।  সম্প্রতি কল্যাণীর এক বিজেপি কর্মী কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে চিঠি লিখে এইমস-এ চাকরি দেওয়ার নামে টাকা নেওয়ার অভিযোগ করেছেন।


 

 অভিযোগ, জামাইকে চাকরি দেন বিধায়ক বঙ্কিম ঘোষ।  এ ব্যাপারে কল্যাণী থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।  অভিযোগের সঙ্গে আটজনের তালিকাও দেওয়া হয়েছে।  সেই তালিকায় রয়েছে বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার, শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকার, AIIMS-এর ডিরেক্টর সহ আরও ৬ জনের নাম।  এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে সিআইডি।  সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, 'আমি চাকরি দিয়েছি।  প্রভাব থাকলে ভবিষ্যতেও চাকরি দেব।'  এই প্রসঙ্গে তিনি বলেছিলেন, "দলের মধ্যে তৃণমূলের লোক রয়েছে যারা গুপ্তচর হিসাবে কাজ করে।  বিজেপিতে এখন শৃঙ্খলা নেই।  তাদের চিনতে হবে এবং ব্যবস্থা নিতে হবে।"

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad