সহকর্মী যদি বসের মতো আচরণ করে, তাহলে তাকে কিভাবে মোকাবিলা করবেন জেনে নিন - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 24 June 2022

সহকর্মী যদি বসের মতো আচরণ করে, তাহলে তাকে কিভাবে মোকাবিলা করবেন জেনে নিন


অফিস এমন একটি জায়গা যেখানে আমরা দীর্ঘ সময় কাটাই।  হয়তো তাই অফিসকে সেকেন্ড হোমও বলা হয়। অফিসে বিভিন্ন প্রকৃতির মানুষ থাকে এবং অনেক সময় তাদের সামলানো খুব কঠিন হয়ে পড়ে।  হয়তো আপনার অফিসে এমন কেউ আছেন যিনি আপনার সহকর্মী হওয়া সত্ত্বেও আপনার সাথে বসের মতো আচরণ করেন।  এই ধরনের লোকদের মোকাবিলা করতে, আমরা আপনাকে কিছু টিপস সম্পর্কে বলছি ।

অতিরিক্ত সতর্ক থাকুন  -

আপনি যদি জানেন যে আপনার সহকর্মীর প্রকৃতি কর্তৃত্বপূর্ণ, তবে আপনি অতিরিক্ত সতর্কতার মাধ্যমে তাকে এড়াতে পারেন।  উদাহরণস্বরূপ, প্রয়োজন না হলে তাকে আপনার কাজের তথ্য দেওয়া এড়িয়ে চলুন এবং অন্যদের বস হওয়ার সুযোগ তৈরি করে এমন কোনো পরিস্থিতি এড়িয়ে চলুন।  এই ধরনের লোকদের থেকে কিছুটা দূরত্ব বজায় রেখে শুধুমাত্র অফিসিয়াল প্রয়োজন অনুযায়ী তাদের সাথে কথা বললেই ভালো হয়।

নিজের জন্য দাঁড়াতে শিখুন -

আপনি যদি না চান অন্য কেউ আপনার উপর কর্তৃত্ব করুক, তাহলে নিজের জন্য দাঁড়াতে শিখুন।  কিছু লোক অন্যের সামান্য চাপের কাছে নতি স্বীকার করে। এটি অন্যদের কাছে একটি ভুল সংকেত পাঠায় এবং তারা তাদের কর্তৃত্ব দেখানোর জন্য এই সুযোগটি ব্যবহার করে।

বিবাদ এড়িয়ে চলুন -

আপনার সহকর্মী আপনার সাথে বসের মতো আচরণ করলে আপনি অবশ্যই খারাপ বোধ করবেন।  তবে এই পরিস্থিতিতে তাদের সাথে বিবাদ করা ভালো ধারণা নয়।  ঝগড়া এবং বিবাদ অফিসে একটি দৃশ্য তৈরি করবে এবং আপনার পেশাদার ইমেজের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।  এটি আপনার জন্য মানসিক চাপও সৃষ্টি করতে পারে।  লোকেরা এই ঝগড়াকে আপনার বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে পারে এবং এটি আপনার কাজেও প্রভাব ফেলতে পারে।

পরামর্শ বিবেচনা করুন -

অফিসের যে কোনো সহকর্মীর কর্তৃত্বপূর্ণ স্বভাব নিশ্চয়ই আপনাকে বিরক্ত করতে পারে। কিন্তু মাঝে মাঝে এই ধরনের লোকেরা এমন কিছু পরামর্শ দেন, যা আপনার জন্য অবশ্যই কাজে আসতে পারে।  তাই, সহকর্মী যদি কোনো পরামর্শ দিচ্ছেন, তার কথা শান্তভাবে শুনুন কিন্তু প্রতিক্রিয়া দেখাবেন না।  তাদের পরামর্শটি গুরুত্ব সহকারে নিন এবং এটি আপনাকে সাহায্য করতে পারে কিনা তা নিয়ে ভাবুন।  ধারণা ভালো হলে তা গ্রহণ করুন, না হলে ধারণা ও ব্যক্তিকে বর্জন করুন।

পরিষ্কারভাবে কথা বলুন -

এটা একটু কঠোর হতে পারে।  কিন্তু কখনও কখনও বিষয়গুলি পরিষ্কারভাবে বলা পরিস্থিতি পরিচালনা করার সর্বোত্তম উপায়।  এই বিষয়ে আপনার সহকর্মীর সাথে আলাদাভাবে কথা বলা ভালো এবং তাকে জানিয়ে দিন যে আপনি তার আচরণ একেবারেই পছন্দ করেন না।  তিনি আপনার এই আলোচনা পছন্দ নাও করতে পারেন, কিন্তু এই কথোপকথনের পরে তিনি অবশ্যই আপনার কাছে কর্তৃত্ব দেখাবেন না।

সীমানা নির্ধারণ করুন -

কর্মক্ষেত্র এবং সহকর্মীর জন্য প্রয়োজনীয় সীমানা নির্ধারণ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।  কেউ আপনার কাজের মাঝখানে কথা বলে তখনই যদি আপনি তাকে বলার অনুমতি দেন।  তাই প্রথম থেকেই আপনার আচরণে ভারসাম্য বজায় রাখুন।  আপনাকে অবশ্যই বুঝতে হবে যে আপনি অফিসে কাজ করার জন্য আছেন। তাই শুধু কাজ করুন এবং অন্যদের এবং নিজের জন্য সীমানা নির্ধারণ করুন যাতে তারা আপনার কাজ বা কথার মধ্যে না আসে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad