স্ত্রীর সঙ্গে লুকিয়ে কথা, প্রতিবাদ করায় যুবককে বেধড়ক মার - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Sunday, 24 July 2022

স্ত্রীর সঙ্গে লুকিয়ে কথা, প্রতিবাদ করায় যুবককে বেধড়ক মার


স্ত্রীর সঙ্গে লুকিয়ে লুকিয়ে কথা, প্রতিবাদ করায় যুবককে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ নেশা মুক্তি কেন্দ্রের কর্ণধরের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার, বনগাঁ থানার পাইকপাড়াতে।  


অভিযোগ, ওই যুবকের স্ত্রীর সঙ্গে গোপনে কথা বলতো নেশা মুক্তি কেন্দ্রের কর্ণধার পার্থ দত্ত। এর প্রতিবাদ করায় যুবককে বেধড়ক মারধর করেন নেশা মুক্তি কেন্দ্রের কর্ণধার পার্থ দত্ত ও তার সঙ্গীরা। ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয় এলাকায়। 


অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বনগাঁ থানার গোবড়াপুরের বাসিন্দা অমিত চক্রবর্তী বিগত বেশ কয়েক মাস নেশা সমস্যার জন্য ভর্তি ছিলেন বনগাঁ থানা এলাকার পাইকপাড়ার একটি নেশা মুক্তি কেন্দ্রে। চিকিৎসা শেষ হলেও ওই যুবক নেশা মুক্তি করণ কেন্দ্রে যাতায়াত করতেন। শনিবার সন্ধ্যাবেলায় অমিত জানতে পারেন যে, তার অজান্তে ওই নেশা মুক্তি কেন্দ্রের কর্ণধার তার স্ত্রীর সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরে গোপনে কথাবার্তা বলছেন। এরপরই অমিত এদিন তার প্রতিবাদ করে। 


অভিযোগ, তখন নেশা মুক্তি কেন্দ্রের কর্ণধার পার্থ দত্ত ও তার সঙ্গীরা অমিতকে গালিগালাজ ও মারধর করে।পাশাপাশি ওই নেশা মুক্তি করণ কেন্দ্র থেকে তাড়িয়ে দেয় তাকে। ওখান থেকে বেরিয়ে বাড়ি যাওয়ার পথে পাইকপাড়া মোড়ের কাছে পুনরায় ওই যুবককে মাটিতে ফেলে বেধড়ক মারধর করে নেশা মুক্তি করণ কেন্দ্রের কর্ণধার ও তার দলবল। 


খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় বনগাঁ রিকভারিং গ্রুপের সদস্যরা। রিকভারিং গ্রুপের সদস্যরা এবং স্থানীয় কিছু মানুষ অমিতকে উদ্ধার করে সেখান থেকে বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করেন। অমিত বর্তমানে গুরুত্ব আহত অবস্থায় বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি। 


বনগাঁ রিকভারিং গ্রুপের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে কোনও নেশা আসক্ত মানুষ পাগল না বা খারাপ না, সে মানুষিক ভাবে অসুস্থ। এই ঘটনার প্রতিবাদে প্রয়োজন হলে তারা বৃহত্তম আন্দোলনের পথে যাবে ।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad