প্রত্যেক বন্ধু গুরুত্বপূর্ণ, সিলমোহর দিল বিজ্ঞানও! জেনে নিন বন্ধু থাকার উপকারিতা - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 22 July 2022

প্রত্যেক বন্ধু গুরুত্বপূর্ণ, সিলমোহর দিল বিজ্ঞানও! জেনে নিন বন্ধু থাকার উপকারিতা


বন্ধুত্ব সবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আপনি বন্ধুদের সাথে শুধু ভালো বোধই করেন না, আপনি মানসিক ও শারীরিকভাবেও সুস্থ থাকেন। এটা আমরা না, বিজ্ঞানও বিশ্বাস করে। হ্যাঁ, আমেরিকান সাইকোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের জার্নাল অফ পার্সোনালিটি অ্যান্ড সোশ্যাল সাইকোলজিতে প্রকাশিত নতুন গবেষণা অনুসারে, আপনি যে পুরানো বন্ধুর সাথে যোগাযোগ হারিয়েছেন, তার সাথে পুনরায় সংযোগ করা একটি চ্যালেঞ্জের মতো মনে হতে পারে, তবে এটি আপনার স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী হতে পারে।


বিজ্ঞান আসলে বলে যে, আপনার এটি করা উচিৎ কারণ এটা চাপ, উদ্বেগ এবং একাকীত্ব থেকে মুক্তি দেয়। এ ছাড়া আপনি আরাম ও ভালো বোধ করেন। এ ছাড়া বন্ধুত্বের উপকারিতা অনেক কিছু বলে, আসুন জেনে নেই-


এই গবেষণা বন্ধুত্ব সম্পর্কে কি বলে?

আমেরিকান সাইকোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের জার্নাল অফ পার্সোনালিটি অ্যান্ড সোশ্যাল সাইকোলজিতে প্রকাশিত এই গবেষণায় হঠাৎ করে বন্ধুদের সঙ্গে দেখা ও কথা বলার উপকারিতা সম্পর্কে বলা হয়েছে। গবেষণায় 5,900 জনেরও বেশি অংশগ্রহণকারীকে জড়িত করা হয়েছিল এবং জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে, তারা যখন হঠাৎ দেখা হওয়া তাদের পুরানো বন্ধুর সাথে কথা বলেছিলেন, তখন তারা কেমন অনুভব করেছিল। এর সাথে সম্পর্কিত 13 টি পরীক্ষার ফলাফল সংগ্রহ করা হয়েছিল। গবেষকরা যারা এই পরীক্ষাগুলি করেছেন, তারা পরীক্ষা করতে চেয়েছিলেন যে লোকেরা সঠিকভাবে তাদের সামাজিক মিথঃস্ক্রিয়া তাদের জন্য কতটা উপকারী তা ভবিষ্যদ্বাণী করে কিনা। গবেষণা দেখায় যে, এটি মানুষকে ভিতর থেকে খুব খুশি করেছিল এবং এটি তাদের ভিতর থেকে একাকীত্ব এবং উদ্বেগের অনুভূতি হ্রাস করেছিল।


স্বাস্থ্যের জন্য বন্ধুত্বের উপকারিতা সম্পর্কে এবারে জেনে নেওয়া যাক-

1. শারীরিক স্বাস্থ্যের জন্য ভাল

এটা দেখা যাচ্ছে যে সুস্থ সম্পর্ক আসলে ভালো শারীরিক স্বাস্থ্যে অবদান রাখে। বন্ধুদের সাথে ঘনিষ্ঠ হওয়ার ফলে আপনার রক্তচাপ বেশি হয় না এবং আপনি ভেতর থেকে ভালো বোধ করেন। এটি আপনাকে হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের মতো হঠাৎ স্বাস্থ্য সমস্যার ঝুঁকি থেকে বাঁচায়। উপরন্তু, দৃঢ় সামাজিক বন্ধন থাকলে, তা একাকীত্বের অনুভূতি কমাতে পারে। এছাড়াও, গবেষণা পরামর্শ দেয় যে শক্তিশালী সম্পর্কযুক্ত ব্যক্তিদের মৃত্যুর ঝুঁকি অর্ধেক থাকে।


2. মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য ভাল

আপনি যদি একটি কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন, আপনার বন্ধুরা আপনাকে এটি থেকে বেরিয়ে আসতে সাহায্য করতে পারে। বন্ধুরা এর সমাধান বা কঠিন সময় কাটতে সাহায্য করেন। হাই স্কুলের পড়ুয়াদের ওপর করা একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে যারা বিষণ্ণ ছিল তাদের সুখী বন্ধুদের সাথে তাদের পুনরুদ্ধারের সম্ভাবনা দ্বিগুণ। এটি আপনাকে সুখী এবং মানসিকভাবে শক্তিশালী করবে।


3. মানসিক চাপ দূর করতে সাহায্য করে

মানসিক চাপ প্রায় সকলেরই সঙ্গী। কিন্তু আপনি যদি জানেন যে আপনার কাছে এমন লোক রয়েছে, যাকে আপনি বিশ্বাস করতে পারেন, তাহলে আপনার কঠিন সময়গুলিতে চাপে পড়ার সম্ভাবনা কম হতে পারে। বন্ধুদের সাথে সময় কাটানো মানসিক চাপও কমাতে পারে। হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুলের মতে, সামাজিক মিথঃস্ক্রিয়া চাপের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে, যা হার্টের ধমনী, অন্ত্রের কার্যকারিতা, ইনসুলিন এবং অনাক্রম্যতা বাড়ায়। এগুলি ছাড়াও, আপনার বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেওয়া কর্টিসলের উত্পাদন হ্রাস করে এবং চাপ প্রতিরোধ করে।


4. আত্মবিশ্বাস বাড়ায়

প্রত্যেকেরই আত্ম-সন্দেহ এবং নিরাপত্তাহীনতা রয়েছে। মনে হয়, আমরা সঠিক বা ভুল করছি কিনা! এমন পরিস্থিতিতে বন্ধুরা আত্মবিশ্বাস বাড়ায় এবং সুখী হওয়ার উপায় বলে দেয়। তারা আপনাকে আপনার সিদ্ধান্তের জন্য অনুপ্রাণিত করে, যা আপনাকে সাহস দেয়।


5. ভালো অভ্যাসের জন্য অনুপ্রাণিত করে

বন্ধুত্ব আপনাকে জীবনধারা পরিবর্তন করতে সাহায্য করতে পারে, যা আপনার মঙ্গলের ওপর সরাসরি প্রভাব ফেলতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, আপনার বন্ধুরা আপনাকে আরও ভালো খেতে এবং আরও ভালো কাজে উৎসাহ দিতে পারে। 

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad