নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াই, মৃত ১ আলফা জঙ্গি - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 1 July 2022

নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াই, মৃত ১ আলফা জঙ্গি


আসামের তিনসুকিয়া জেলায় জঙ্গি সংগঠন আলফা আই (ইউনাইটেড লিবারেশন ফ্রন্ট অফ আসাম) এবং নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে শুক্রবার একটি এনকাউন্টার শুরু হয়। এদিকে আলফার এক সদস্যর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। এ তথ্য জানিয়েছেন জেলার এসপি দেবজিৎ দেওরি।  তিনি জানান, আলফার ৬ ক্যাডারের গোলাবারুদসহ অনুপ্রবেশের তথ্য ছিল। তল্লাশি অভিযানের সময় বিদ্রোহী সংগঠনটি নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর গুলি চালাতে থাকে। প্রায় ৩০ মিনিট ধরে দুই পক্ষ থেকে গোলাগুলি চলে।


সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, আসাম রেজিমেন্টের জওয়ানরা জেলার কাকাপাথার এলাকায় দুই জঙ্গির লুকিয়ে থাকার খবর পেয়েছিলেন। এরপরই এলাকা ঘিরে ফেলে নিরাপত্তা বাহিনী। এ সময় আলফা জঙ্গিরা বিষয়টি জানতে পেরে গ্রেনেড দিয়ে হামলা চালায়। বলা হচ্ছে, রূপম আসামের নেতৃত্বে আলফা সংগঠনের ৬ জঙ্গি জড়িত ছিল। বর্তমানে এলাকায় তল্লাশি অভিযান চলছে। আপার আসাম জিতমল দোলে এবং তিনসুকিয়ার এসপি দেবজিৎ দেওরি ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন।



উল্লেখ্য, হিমন্ত বিশ্ব শর্মা আসামে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পরে, আলফা আই প্রধান পরেশ বড়ুয়া যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছিল। সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে পরেশ বড়ুয়া বলেছিলেন, আলফার হামলা যুদ্ধবিরতিতে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে। তিনি আলফার যুবকদের অস্ত্র নামিয়ে ফেলারও আহ্বান জানান।  মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, গত কয়েক দিনে আসামের অনেক যুবক আলফা আই-তে যোগ দিয়েছে।


আলফা বা ইউনাইটেড লিবারেশন ফ্রন্ট অফ আসাম হল ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্য আসামে কর্মরত একটি বড় সন্ত্রাসী ও চরমপন্থী সংগঠন। এর লক্ষ্য সশস্ত্র সংগ্রামের মাধ্যমে আসামকে একটি স্বাধীন রাষ্ট্রে পরিণত করা। ভারত সরকার ১৯৯০ সালে এটি নিষিদ্ধ করে এবং এটিকে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসাবে শ্রেণীবদ্ধ করে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad