বিজেপির প্ল্যান সাউথ! নতুন জয়ের লক্ষ্যে কোমর বাঁধছে পদ্ম শিবির - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 2 July 2022

বিজেপির প্ল্যান সাউথ! নতুন জয়ের লক্ষ্যে কোমর বাঁধছে পদ্ম শিবির


হায়দ্রাবাদে শুক্রবার জাতীয় সাধারণ সম্পাদকদের বৈঠকের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে বিজেপির দুদিনের জাতীয় কার্যনির্বাহী সভা। হায়দরাবাদের মাটিতে 18 বছর পর অনুষ্ঠিত বৈঠকের মাধ্যমে দক্ষিণ ভারতে পা রাখার শক্তিশালী প্রস্তুতি নিচ্ছে বিজেপি। তেলেঙ্গানার সমস্ত 119টি বিধানসভায় 48 ঘন্টা ব্যয় করে বিজেপি নেতারা এটি শুরু করেছেন। 


কার্যনির্বাহী সভার প্রাক্কালে, বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা একটি রোড শো করে তার অভিপ্রায়ের কথা জানিয়েছেন, আগামী দু'দিন ধরে, বিজেপি কার্যনির্বাহীর প্রায় 350 জন সদস্য মন্থন (চিন্তাভাবনা) করবেন, যে কীভাবে তেলেঙ্গানা সহ দক্ষিণের কেরালা, তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশে সরকার গঠন করা যায় এবং কর্ণাটকে ঘুরে দাঁড়াতে হয়।


2 এবং 3 জুলাই, হায়দরাবাদের নভোটেল কনভেনশন সেন্টারে বিজেপির জাতীয় কার্যনির্বাহী বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে। কার্যনির্বাহী কমিটির মাধ্যমে ওয়াইসি এবং কে চন্দ্রশেখর রাওকে তাদের শক্ত ঘাঁটিতে ঘিরে রাখার জন্য বিজেপি একটি আক্রমণাত্মক কৌশল নিয়ে কাজ করছে। এই বৈঠককে নানাভাবে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।  


সূত্র মতে, কর্ণাটক ছাড়াও, বিজেপি অন্যান্য রাজ্যগুলিতেও ফোকাস করছে। যেমন তেলেঙ্গানা, অন্ধ্রপ্রদেশ, কেরালা এবং তামিলনাড়ু বিজেপির এজেন্ডায় রয়েছে। বিজেপি এই রাজ্যগুলিতে প্রায় 120 টি আসনের ওপর ফোকাস করছে এবং এর পটভূমি হায়দ্রাবাদ কার্যনির্বাহী থেকে লেখা হবে।


যদিও কর্ণাটক এবং তেলেঙ্গানার কিছু অংশ ছাড়া অন্য রাজ্যে বিজেপি শূন্যের কোঠায় দাঁড়িয়েছে, কিন্তু বিজেপি জানে যে দেশের প্রতিটি অংশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রচুর জনপ্রিয়তা রয়েছে। এই বিষয়টিকে পুঁজি করার পরিকল্পনা করছে বিজেপি। আজ শনিবার বিকেলে হায়দরাবাদে পৌঁছে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বিকেল চারটায় কার্যনির্বাহীসভা উদ্বোধন করার সময়, বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা কার্যনির্বাহী সদস্যদের সামনে কার্যনির্বাহী সংসদের উদ্বোধনী অধিবেশনে ভাষণ দিয়ে বিজেপির নীতি তুলে ধরবেন। কার্যনির্বাহী সংসদের উভয় অধিবেশনেই থাকবেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।


প্রসঙ্গত, তামিলনাড়ু লোকসভায় 39টি আসন, কেরালা লোকসভায় 20টি আসন, কর্ণাটক লোকসভায় 28টি আসন, তেলেঙ্গানা লোকসভায় 17টি আসন, অন্ধ্রপ্রদেশ লোকসভায় 25টি আসন। 


একদিকে, বিজেপি বন্ধ হলের সমাপনী অধিবেশন চলাকালীন প্রধানমন্ত্রী মোদীর সমাপনী বক্তৃতার মাধ্যমে তার নেতা এবং কার্যনির্বাহী সদস্যদের উত্সাহিত করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। অন্যদিকে, কার্যনির্বাহীর শেষ দিনে, হায়দরাবাদের ঐতিহাসিক প্যারেড গ্রাউন্ডে প্রধানমন্ত্রীর মেগা বিজয় সংকল্প সভা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে, যার মাধ্যমে তেলেঙ্গানার প্রতিটি বুথ থেকে আগত কর্মীদের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারবেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।  


এই সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী মোদীর পাশাপাশি বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির সমস্ত মুখ্যমন্ত্রী এবং উপমুখ্যমন্ত্রীরাও মঞ্চে থাকবেন। প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় 33 হাজার বুথ সমন্বয়কারীকে ডাকা হয়েছে।


তেলেঙ্গানায় 'বাই বাই কেসিআর' স্লোগান দিয়েছে বিজেপি। বিজেপি বিশ্বাস করে, তেলেঙ্গানায় কেসিআরের সরকারের পতন ঘটে, তার সরকারের পতাকা উড়তে চলেছে। এর জন্য তেলেঙ্গানা বিজেপি অফিসে একটি বড় ডিজিটাল ঘড়িও বসিয়েছে বিজেপি। এই ঘড়িতে লেখা রয়েছে, তেলেঙ্গানা সরকারের আর মাত্র 522 দিন বাকি। সময়ের সাথে সাথে সরকারের দিন কমছে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad