অ্যারেস্ট মেমোতে মমতার নাম, পার্থর ভূমিকায় ক্ষুব্ধ তৃণমূল - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Sunday, 24 July 2022

অ্যারেস্ট মেমোতে মমতার নাম, পার্থর ভূমিকায় ক্ষুব্ধ তৃণমূল

 


দল এখনও পুরোপুরি পার্থর পাশ ছাড়েনি।  তৃণমূলের তরফে আরও বলা হয়েছে যে যতক্ষণ না তিনি আইনিভাবে দোষী প্রমাণিত হচ্ছে ততক্ষণ তার বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হবে না।  কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেস গোটা গ্রেফতার পর্বে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ভূমিকা নিয়ে খুশি নয়।  বিশেষ করে পার্থ যেভাবে তাঁর গ্রেফতারি স্মারকলিপিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম লিখেছেন, তাতে তাঁর ওপর ক্ষুব্ধ তৃণমূল।




  শনিবার গ্রেফতারের পর পার্থ বলেন, আমি মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছি। পারিনি। তবে আমার কোনও চিন্তা নেই।” সূত্রের দাবী, গ্রেফতারের আগে মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করেছিলেন রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী।  কিন্তু মমতার সঙ্গে ফোনে কথা হয় নি তার।  যদিও, ফিরহাদ হাকিম পরে দাবী করেছেন যে এজেন্সির লোকেরা এই ধরনের অনুসন্ধানের শুরুতেই ফোন তুলেছিল।  যে কারণে পার্থ কারও সাথে কথা বলতে পারেনি।  এই তদন্ত নিয়ে পার্থের নিজের অবস্থান কী, তা এখনও স্পষ্ট নয় দলের কাছে।



এদিকে, শিল্পমন্ত্রী তার গ্রেফতারি স্মারকলিপিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম ও মোবাইল নম্বর উল্লেখ করেছেন বলে জানা গেছে।  ইডি আধিকারিকরা যখন জিজ্ঞাসা করলেন তিনি হেফাজতে কার সাথে যোগাযোগ করতে চান, তিনি মুখ্যমন্ত্রীর নাম এবং নম্বর দেন।  দল তার উপর ক্ষুব্ধ এবং অসন্তুষ্ট, তৃণমূল নেতৃত্ব বুঝিয়ে দিয়েছে যে তারা আদালতের উপর ভরসা রাখছে।



যদিও দল কার্যত স্পষ্ট করে দিয়েছে, পার্থবাবু ষড়যন্ত্রের শিকার।  তৃণমূলের সাংবাদিক বৈঠকে ফিরহাদ হাকিম জানান, বিজেপিতে যোগ না দেওয়ায় ইডি তাঁকে আক্রমণ করেছে।  কুণাল ঘোষ বলেন, পার্থ চট্টোপাধ্যায় বিজেপিতে যোগ দিলে ইডি তল্লাশি করত না।  অথবা তল্লাশির সময় যা পাওয়া যেত তা প্রকাশ্যে আনা হত না।  যদিও পার্থর মুখ থেকে 'বিজেপি ষড়যন্ত্র' নিয়ে কোনও কথা বের হয়নি।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad