বিষাক্ত মদের বলি ৬! অসুস্থ একাধিক - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 20 July 2022

বিষাক্ত মদের বলি ৬! অসুস্থ একাধিক


বর্ধমানের ছায়া এবারে হাওড়ায়। ছয় জনের রহস্য মৃত্যু। বিষ মদের প্রভাবেই মৃত্যু বলে দাবী পরিবারের। চঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার মালি পাঁচ ঘড়া থানার অন্তর্গত ঘুশুড়ি এলাকার গজানন্দ বস্তিতে। উল্লেখ্য, কয়েক দিন আগে বর্ধমানে বিষ মদ পান করে আট জনের মৃত্যু হয়। 


স্থানীয় সূত্রে খবর, ওই বস্তি এলাকাতে মদ পান করার পর বেশ কয়েক জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। পরিবারের সদস্যদের দাবী, বিষাক্ত মদের প্রভাবেই তাঁদের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও বেশ কয়েকজন গুরুতর অসুস্থ অবস্থাতে বাড়িতেই রয়েছে বলে সূত্রের খবর। আবার অসুস্থদের মধ্যে কয়েকজনকে স্থানীয় হাসপাতালেও ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে তাঁদের চিকিৎসা চলছে বলে পরিবার সূত্রে জানা যাচ্ছে। 


ঘুশুড়ির যে এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে, সেটি একটি শিল্পাঞ্চল। প্রচুর ছোট-ছোট কারখানা রয়েছে সেখানে। বহু শ্রমিক কাজ করেন ওই সমস্ত কারখানায়। দিনভর পরিশ্রমের পর সন্ধ্যেয় তাঁরা ওই ঠেকে গিয়ে নেশাভাঙ করেন বলে দাবী স্থানীয়দের। প্রতাপ কর্মকার নামের এক ব্য়বসায়ী ওই চোলাইয়ের ঠেক চালাতেন বলে অভিযোগ। তাঁর ওপর রাগ গিয়ে পড়েছে স্থানীয়দের। বিষ মদ কাণ্ডে ছয় জনের মৃত্যুর পাশাপাশি বহু ব্যক্তি অসুস্থ হয়েছেন বলেই খবর পাওয়া যাচ্ছে।


ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসার পরেই ওই বস্তিতে আসেন হাওড়া সিটি পুলিশের পুলিশ কমিশনার প্রবীন কুমার ত্রিপাঠী। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। গোটা বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে বলেই পুলিশ সূত্রের খবর। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে রেয়াত করা হবে না বলেই জানা যাচ্ছে হাওড়া সিটি পুলিশ সূত্রে। পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। 


স্থানীয়দের দাবী, মঙ্গলবার রাতে আকণ্ঠ পান করার পর থেকেই একে একে অসুস্থ হয়ে পড়তে শুরু করেন সকলে। যত রাত বাড়ে, ততই মৃত্যুর মুখে ঢলে পড়তে থাকেন পর পর লোকজন। কান্নার রোল উঠেছে ঘরে ঘরে। 


স্থানীয়দের অভিযোগ, নিয়মিত ওই বেআইনি ঠেকে আসর বসে। দীর্ঘ দিন ধরেই এমন চলছে। অথচ কারও কোনও হেলদোল নেই। দিনের পর দিন বেআইনি ঠেকে আসর বসত বলে অভিযোগ। কেন ওই বেআইনি ঠেক ভেঙে দিল না প্রশাসন? প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad