পার্থ 'লীলা'য় নয়া মোড়! বিউটি পার্লার চালানো মহিলাকে নিয়ে অর্পিতার সঙ্গে ঝগড়া, ছেড়ে যাওয়ার হুমকি - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 27 July 2022

পার্থ 'লীলা'য় নয়া মোড়! বিউটি পার্লার চালানো মহিলাকে নিয়ে অর্পিতার সঙ্গে ঝগড়া, ছেড়ে যাওয়ার হুমকি


এসএসসি নিয়োগ কেলেঙ্কারিতে মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তার ঘনিষ্ঠ সহযোগী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের গ্ৰেফতারের পর প্রতিদিনই নতুন নতুন রহস্য সামনে আসছে। এবার অর্পিতার পাশাপাশি আরও এক মহিলার নাম সামনে এসেছে। ইডি আধিকারিকদের মতে, ইডি-র রাডারে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ আরও একজন মহিলা রয়েছেন। অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে জিজ্ঞাসাবাদের সময়, ইডি আধিকারিকরা এই মহিলার সম্পর্কে তথ্য পেয়েছেন যিনি একটি বিউটি পার্লার এবং টেক্সটাইল সংস্থা চালান। এই মহিলার একটি বড় বিউটি পার্লার চেইন রয়েছে এবং পার্থ চ্যাটার্জির মহিলার বিউটি কোম্পানিতে একটি বড় বিনিয়োগ রয়েছে। এই মহিলা কলকাতার জন্য বড় ব্যক্তিত্ব। ইডি আধিকারিকরা এখন এই সংক্রান্ত নথিগুলি পরীক্ষা করছেন।


তদন্তের স্বার্থে যদিও ইডি আধিকারিকরা বর্তমানে মহিলার নাম প্রকাশ করছেন না, তবে সূত্র বলছে যে, ওই মহিলা ইডি আধিকারিকদের স্ক্যানারে রয়েছেন।


ইডি আধিকারিকদের মতে, ওই মহিলাকে নিয়ে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঝগড়াও হয়েছিল। অর্পিতা মুখোপাধ্যায়, ওই মহিলাকে নিয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে ওয়ার্নিংও পর্যন্ত দিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, 'ও সঙ্গে থাকলে আমি তোমাকে ছেড়ে চলে যাব।' 


শুধু তাই নয়, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের আগে অর্পিতা বিজেপিতে যোগ দেওয়ারও চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি সফল হতে পারেননি। এমনকি এই লড়াইয়ে উঠে এসেছে মদন মিত্রের নাম, যিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রী ছিলেন। প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্রের খুব ঘনিষ্ঠ ছিলেন ওই মহিলা। এ নিয়ে মদন মিত্রের সঙ্গে মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঠান্ডা লড়াইও ছিল, যদিও পরে তা মিটে যায়।


উল্লেখ্য, প্রায় ১০ বছর ধরে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের সাথে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের যোগাযোগ ছিল। তিনি টালিগঞ্জে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাটে আসা-যাওয়া করতেন। আর এই অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকেই ২১ কোটির বেশি টাকা, বৈদেশিক মুদ্রা, সোনার গয়না এবং জমির কাগজপত্র ইডি আধিকারিকরা খুঁজে পেয়েছেন। এরপর থেকে প্রতিদিনই সামনে এসেছে নতুন নতুন তথ্য।  


পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতার নামে যৌথভাবে কেনা জমিও পেয়েছেন ইডি আধিকারিকরা। এছাড়াও, ইডি আধিকারিকদের মতে, শান্তিনিকেতনে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জমিও পাওয়া গেছে এবং সেই ক্ষেত্রে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাম অধ্যাপিকা মোনালিসা দাসের সঙ্গে যুক্ত ছিল। মোনালিসা দাস, পার্থ চ্যাটার্জির খুব ঘনিষ্ঠ ছিলেন বলে অভিযোগ। শান্তিনিকেতনে তার সাতটি ফ্ল্যাট ছিল।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad