'অনুব্রতকে জামিন না দিলে মাদক মামলায় জড়িয়ে দেওয়া হবে, বিচারককে হুমকি চিঠি - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 23 August 2022

'অনুব্রতকে জামিন না দিলে মাদক মামলায় জড়িয়ে দেওয়া হবে, বিচারককে হুমকি চিঠি


গরু চোরাচালান মামলায় গ্রেফতার তৃণমূল কংগ্রেসের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। বুধবার তাকে ফের আসানসোলের বিশেষ আদালতে‌ তাকে পেশ করা হবে। কিন্তু তার আগেই আশ্চর্যজনক কাণ্ড। জামিন না দিলে মাদক মামলায় জড়িয়ে দেওয়া হবে, এমনই হুমকি চিঠি বিচারকের কাছে এসেছে বলে অভিযোগ। সিবিআই সূত্রের দাবী, চিঠিতে বলা হয়েছে- গরু পাচার মামলায় অনুব্রত মণ্ডলকে জামিন দিতে হবে, অন্যথায় পরিবারকে মাদকের মামলায় জড়ানো হবে।


আসানসোলের বিশেষ সিবিআই আদালতের বিচারক রাজেশ চক্রবর্তী অভিযোগ করেছেন যে, তিনি ২০ আগস্ট হুমকি চিঠি পেয়েছিলেন। চিঠির প্রেরকের নাম বাপ্পা চট্টোপাধ্যায়। সোমবার সিবিআই বিচারক জেলা জজকে চিঠি প্রাপ্তির কথা জানান। পরে তিনি এ বিষয়ে কলকাতা হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলকেও জানিয়েছেন।


বিচারক চক্রবর্তীর কাছে একটি চিঠিতে, তাকে এবং তার পরিবারকে 'এনডিপিএস মামলা' অর্থাৎ মাদক মামলায় জড়ানোর হুমকি দেওয়া হয়েছে। অনুব্রত মণ্ডলের জামিন না হলে আমার পরিবারকে মাদক মামলায় ফাঁসানো হবে, বলে দাবী করেন তিনি।  


অনুব্রতকে বুধবার আসানসোল সিবিআই আদালতে পেশ করা হবে। তার আগে এমন হুমকি চিঠি পেয়ে বিচারক কি ভয় পেয়েছেন? এ প্রসঙ্গে আসানসোলের একজন সিনিয়র আইনজীবী বলেন, “আমি দীর্ঘদিন ধরে এই বিচারককে দেখছি। তিনি হুমকির কাছে নতি স্বীকার করার মতো নন। এ ছাড়া তিনি নিজেই বলেছেন, এই বিপদে তিনি মোটেও ভীত নন।"


অন্যদিকে, অনুব্রতর আইনজীবীদের একজন অনিন্দ্য গুহ ঠাকুরতা এই প্রসঙ্গে বলেন, “আমি এই ঘটনার নিন্দা জানাই। একজন বিচারককে সম্মান করা উচিৎ। যারা এটা করছে তাদের অবিলম্বে চিহ্নিত করে শাস্তি দিতে হবে।" তার মতে, এতে বিচার ব্যবস্থাকে কলঙ্কিত হচ্ছে।" 


আরেক আইনজীবী তরুণজ্যোতি তিওয়ারির মতে, 'অনুব্রত ইতিমধ্যে অনেককে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়েছেন, এবারও তাই করতে চান।' অনুব্রত মণ্ডলের বিচার এ রাজ্যে সম্ভব নয় বলে দাবী করেন তিনি। তিনি দাবী করেন, হুমকি দেওয়া ব্যক্তি অনুব্রতের ঘনিষ্ঠ। তাঁর মতে, প্রকৃত শুনানির জন্য অনুব্রতকে তিহার জেলে পাঠানো উচিৎ। তরুণজ্যোতি তিওয়ারি এও দাবী করেছেন যে, তৃণমূল ইতিমধ্যেই বিচার ব্যবস্থাকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছে। 


বরিষ্ঠ আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘এটা নতুন কোনও ঘটনা নয়। অতীতেও অনেক বিচারক এ ধরনের অভিযোগ করেছেন। তাদের হুমকি দেওয়া হয়। এইভাবে তৃণমূলের আমলে আইনশৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে।" অন্যদিকে বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা নিন্দা করেছেন যে, 'আগে বিজেপি নেতাকে হুমকি দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু এখন বিচারকদেরও হুমকি দেওয়া হচ্ছে। দিদি মনে হয় আরও অনুপ্রেরণা আর অক্সিজেন দিয়েছে।'

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad