নবান্ন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার! স্বরাষ্ট্র সচিরের কাছে রিপোর্ট তলব হাইকোর্টের - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 13 September 2022

নবান্ন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার! স্বরাষ্ট্র সচিরের কাছে রিপোর্ট তলব হাইকোর্টের


বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্য সরকারের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। স্বরাষ্ট্র সচিবকে ১৯ সেপ্টেম্বরের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। অন্যদিকে, পুলিশি পদক্ষেপের বিরুদ্ধে আগামীকাল গোটা রাজ্যে কালা দিবস পালন করবে বিজেপি।


উল্লেখ্য, নবান্ন অভিযানের সময়, কলকাতা এবং হাওড়ায় বিজেপি সমর্থক এবং পুলিশের মধ্যে মারাত্মক সংঘর্ষ হয়। বিজেপি সমর্থকদের বিরুদ্ধে ইট-পাথর ছোঁড়ার অভিযোগ ওঠে, তারপর পুলিশও লাঠি চার্জ করে। জলকামান ও কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করা হয়।


অন্যদিকে, শান্তিপূর্ণ মিছিলে বাধা দেওয়া ও পুলিশের পদক্ষেপের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করেছিল বিজেপি। আবেদনের শুনানি করতে গিয়ে প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব রাজ্য সরকারের কাছে রিপোর্ট তলব করেছেন। স্বরাষ্ট্র সচিব আদালতে রিপোর্ট দেবেন। একই সঙ্গে গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিদের অবিলম্বে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। 


শুনানির সময় বিজেপির আইনজীবী প্রশ্ন করেন, "পুলিশ কেন শান্তিপূর্ণ মিছিলে বাধা দিল?" অভিযোগ, বিজেপির পার্টি অফিসে ঢুকে পড়ে পুলিশ। পুলিশের বিরুদ্ধে মিছিলে বাধা দেওয়ার অভিযোগ। মহিলা পুলিশ দলের শীর্ষ নেতাদের গ্রেফতার করেছে বলেও দাবী করা হয়।


বাদীর পক্ষে উপস্থিত হয়ে অ্যাডভোকেট সুবীর সানাল দাবী করেন, দলীয় কার্যালয়ের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। কেন শান্তিপূর্ণ মিছিল বন্ধ করা হল, সে বিষয়ে রাজ্যের কাছে রিপোর্ট চাওয়ার অনুরোধ করেন তিনি। আবেদনকারীর দাবী, বিজেপি কর্মীদের ট্রেন বা বাসেও আসতে দেওয়া হয়নি। 


শুনানির সময়, অ্যাডভোকেট জেনারেল বলেন যে, হাওড়া ময়দান এলাকা, সাঁতরাগাছি, কোনা এক্সপ্রেসে বড় জমায়েত, গাড়ি ইত্যাদি থাকতে পারবে না, কারণ হাওড়ার এই এলাকায় ১৪৪ ধারা কার্যকর রয়েছে। এমজি রোডে পুলিশের একটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়, বলে অভিযোগ। হাওড়ায় একটি পোস্ট উপড়ে ফেলা হয়েছে। আহত হয়েছেন অন্তত অর্ধশতাধিক পুলিশ কর্মী। এক পুলিশ কর্মীর হাত ভেঙে গেছে। পুলিশ বাধ্য হয়ে কাজ করেছে।


প্রসঙ্গত, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শাসনামলে দুর্নীতির বিরুদ্ধে বিজেপির নবান অভিযানের সময় অগ্নিসংযোগ এবং ১৪৪ ধারা ভঙ্গ সহ বিভিন্ন মামলার জন্য বিজেপি সমর্থকদের বিরুদ্ধে ছয়টি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে পুলিশের গাড়ির ক্ষতি, বড়বাজারে একজন পুলিশ অফিসারের হাত ভাঙ্গা এবং ১৪৪ ধারা ভঙ্গের মামলা রয়েছে। বিজেপির নবান্ন অভিযানের সময় পুলিশ মোট ৯০ জনকে গ্রেফতার করেছে, এর মধ্যে ২৭ জন মহিলা রয়েছেন। পাশাপাশি বিজেপি সমর্থকদের পাথর নিক্ষেপে ২৭ জন পুলিশ আহত হয়েছেন বলেও অভিযোগ। 

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad