সাধারণ এবং স্মার্ট মিটারের মধ্যে পার্থক্য কী জানুন! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 9 September 2022

সাধারণ এবং স্মার্ট মিটারের মধ্যে পার্থক্য কী জানুন!

 






সময়ের পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে সময়ও বদলাচ্ছে।  প্রযুক্তি বিশ্বে এতদূর পৌঁছেছে যে আজ সবকিছুই সম্ভব।  প্রতিদিনই নতুন নতুন আবিষ্কার হচ্ছে।  এসব উদ্ভাবন ছোট থেকে বড় পরিসরে ঘটছে।  দেশে যখন বিদ্যুৎ এসেছে তখন মিটার ছিল না।  এরপর ধীরে ধীরে সময় পাল্টে সব বাড়িতে মিটার লাগানো হয়।যাতে বিদ্যুত খরচ করা ট্র্যাক করা যায়। 


 এর মাধ্যমে গ্রাহকদের কাছ থেকে বিদ্যুৎ চার্জ আদায়ের সুবিধাও পেয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ।  এখন যুগ স্মার্ট হয়ে গেছে।  এমন পরিস্থিতিতে সাধারণ মিটারের পরিবর্তে বসানো হচ্ছে স্মার্ট মিটার।  সাধারণ এবং স্মার্ট  মিটারের মধ্যে পার্থক্য কী তা নিয়ে অনেকেরই দ্বিধা রয়েছে, তাই আসুন বিস্তারিতভাবে জানি।


 সাধারণ মিটার আমরা অনেক বছর ধরে ব্যবহার করছি।  এই মিটারের মাধ্যমে জানা যায় কত বিদ্যুৎ খরচ হয়েছে।  বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মীরা এসে আপনার বিদ্যুতের মিটার দেখে এবং আপনাকে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে বলে।  এ সময় মিটারে বিদ্যুৎ ব্যবহারের পর বিল পরিশোধ করতে হয়। এই ক্ষেত্রে, বিদ্যুৎ চুরির সম্ভাবনা খুব বেশি।  যেখানে স্মার্ট মিটারে আপনাকে প্রথমে বিদ্যুৎ বিল দিতে হবে।


 সরকার সব বাড়িতে সাধারণ মিটার প্রতিস্থাপন করে স্মার্ট মিটার বসানোর পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে।  স্মার্ট মিটারের মাধ্যমে উচ্চ বিদ্যুৎ বিল পাওয়ার ভয় থাকবে না।  স্মার্ট মিটার বসানোর পর যত খুশি বিদ্যুৎ বিল খরচ করা যাবে।  আপনাকে স্মার্ট মিটার রিচার্জ করতে হবে।  আপনি আপনার রিচার্জ প্ল্যান অনুযায়ী আপনার বিদ্যুৎ ব্যবহার করতে সক্ষম হবেন।


 স্মার্ট মিটারের মাধ্যমে গ্রাহকরা ইতিমধ্যেই জানতে পারবেন কত বিদ্যুৎ বিল খরচ হবে, এখন কত বিল আসবে এবং আগামী মাসে আমাদের কত রিচার্জ করতে হবে।  তবে রিচার্জ না করলে বিদ্যুতের সুবিধা পাবেন না।  এটির একটি সুবিধাও রয়েছে যে আপনি যদি কোথাও বাইরে যান তবে আপনাকে বিদ্যুৎ বিলের নামে ১ টাকাও দিতে হবে না।  এমন অনেক ঘটনা ঘটেছে যে সাধারণ মিটারে ঘর বন্ধ থাকার পরও বিদ্যুৎ বিল আসে।  আশা করি এসব সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad