এক মুসলিম দম্পতি তিরুপতি বালাজির মন্দিরে দান করলেন ১.০২ কোটি টাকা! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 23 September 2022

এক মুসলিম দম্পতি তিরুপতি বালাজির মন্দিরে দান করলেন ১.০২ কোটি টাকা!

  





আমাদের দেশে অনেক বিস্ময়কর এবং বিখ্যাত মন্দির রয়েছে।  এই মন্দিরগুলির মধ্যে দক্ষিণ ভারতে অবস্থিত ভগবান তিরুপতি বালাজির মন্দিরও রয়েছে।  প্রভু তিরুপতি বালাজি মন্দির ভারত সহ সমগ্র বিশ্বে তার অলৌকিক কাজের জন্য পরিচিত।  এই মন্দিরটি ভারতীয় স্থাপত্য ও কারুশিল্পের একটি চমৎকার নিদর্শন।  তিরুপতি বালাজি মন্দির ভগবান বিষ্ণুকে উৎসর্গ করা হয়।  এই মন্দিরটি অন্ধ্র প্রদেশের চিত্তুর জেলার তিরুমালা পর্বতে অবস্থিত এবং এটি ভারতের অন্যতম প্রধান তীর্থস্থান।  তিরুপতি বালাজির আসল নাম শ্রী ভেঙ্কটেশ্বর স্বামী যিনি স্বয়ং ভগবান বিষ্ণু।  ধর্মীয় বিশ্বাস অনুসারে, ভগবান শ্রী ভেঙ্কটেশ্বর তাঁর সহধর্মিণী পদ্মাবতীর সঙ্গে তিরুমালায় বাস করেন।  এটা বিশ্বাস করা হয় যে সমস্ত ভক্ত যারা আন্তরিক চিত্তে ভগবান ভেঙ্কটেশ্বরের সামনে প্রার্থনা করেন, তাদের সমস্ত ইচ্ছা পূরণ হয়।  ভক্তরা তাদের শ্রদ্ধা অনুযায়ী এখানে এসে তিরুপতি মন্দিরে দান করেন।


ইতিমধ্যে, এক মুসলিম দম্পতি তিরুপতি বালাজি মন্দিরে দান করেছেন ১.০২ কোটি টাকা। চেন্নাইয়ের বাসিন্দা আব্দুল গনি ও তার স্ত্রী সুবিনা বানো মন্দিরে এই বড় অনুদান দিয়েছেন।  আব্দুল গনি একজন ব্যবসায়ী।  মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, মুসলিম দম্পতির অনুদানের অর্থের ৮৭ লাখ রুপি পদ্মাবতী রেস্ট হাউসের আসবাবপত্র ও বাসন-পত্রের জন্য ব্যবহার করা হবে।  এতে ভক্তদের আরও ভালো সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যাবে।


এ ছাড়া বাকি অনুদানের ১৫ লাখ টাকা এসভি আন্না প্রসাদম ট্রাস্টকে দেওয়া হবে।  এসভি আন্না প্রসাদম ট্রাস্ট প্রতিদিন ভক্তদের বিনামূল্যে খাবার সরবরাহ করে।  মুসলিম দম্পতি তিরুমালা তিরুপতি দেবস্থানমের আধিকারিক এভি ধর্ম রেড্ডিকে চেক হিসেবে ১.০২ কোটি টাকা দিয়েছেন।  মন্দিরের পক্ষ থেকে মুসলিম দম্পতিকে প্রসাদ দেওয়া হয়।  ব্যবসায়ী আব্দুল গনি এর আগেও মন্দিরে দান করেছিলেন।  মুসলিম দম্পতি তিরুপতি বালাজি মন্দিরে সবজি পচে যাওয়া থেকে বাঁচাতে ৩৫ লাখ টাকার একটি ফ্রিজ দান করেছেন। ২০২০ সালে কোরানা সময়কালে জীবাণুনাশক স্প্রে করার জন্য একটি ট্র্যাক্টর-মাউন্ট করা স্প্রেয়ার দান করেছেন।


 এখানে মানুষ চুলও দান করে।  কিছুদিন আগে ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানিও তিরুমালা মন্দিরে দেড় কোটি টাকা দান করেছিলেন।



No comments:

Post a Comment

Post Top Ad