বিশেষজ্ঞদের মতে,পিটবুল কুকুরের আক্রমণাত্মক হওয়ার পেছনের কারণ - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 4 November 2022

বিশেষজ্ঞদের মতে,পিটবুল কুকুরের আক্রমণাত্মক হওয়ার পেছনের কারণ

 





কুকুর অন্যতম গৃহপালিত প্রাণী। বেশিভাগ মানুষ নিজ বাড়িতে কুকুর পোষে ।তবে সব কুকুর ভালো হয় না,কিছু ভীষণ ভয়ঙ্কর আক্রমণাত্মকও হয়। এই আক্রমণাত্মক কুকুরের তালিকায় নাম পড়ে পিটবুলের। 


সম্প্রতি লখনউতে,  দিল্লির আশেপাশে বহু মানুষকে কামড়েছে পিটবুল।  পিটবুলের সম্পর্কে  বিশেষজ্ঞরা কী বলছেন আসুন জেনে নেওয়া যাক -


 ৩রা সেপ্টেম্বর, গাজিয়াবাদের একটি পার্কে হাঁটতে থাকা একটি শিশুকে পিটবুল আক্রমণ করে।  হামলায় শিশুটি গুরুতর আহত হয়।  এর আগে আগস্ট মাসে, গাজিয়াবাদে একই  ঘটনা সামনে আসে। সেখানে এক মহিলাকে আক্রমণ করে এই কুকুর।


 অলাভজনক PETA মৎস্য, পশুপালন ও দুগ্ধ মন্ত্রীকে একটি চিঠি লিখে বলেছিলেন যে "পিটবুল  ইংল্যান্ডে একটি অত্যন্ত আক্রমণাত্মক এবং নৃশংস খেলার জন্য প্রজনন করা হয়েছিল। যাকে বলা হত বিয়ার বেটিং। খেলাটি ১৮৩৫ সালে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল।"


 PETA মন্ত্রীকে ২০১৭সালে সংশোধন করার অনুরোধ করে যাতে এই বিদেশী জাতের কুকুর পালন ও প্রজনন নিষিদ্ধ করা যায়।


  উল্লেখযোগ্যভাবে, পিটবুল কুকুরটি একটি বুলডগ এবং একটি টেরিয়ারের মধ্যে একটি ক্রস দ্বারা প্রজনন করা হয়েছিল।  যার কারণে এই জাতটির বুলডগের মতো শক্তি এবং টেরিয়ারের মতো দৃঢ়তা রয়েছে।


বিশেষজ্ঞের মতে, পিটবুল এমন একটি কুকুর যার শারীরিক ব্যায়াম এবং অন্যান্য শারীরিক ইচ্ছে পূরণের প্রয়োজন হয়।   তাদের যথাযথভাবে প্রশিক্ষণ দেওয়া প্রয়োজন এবং তাদের আচরণে সামান্য পরিবর্তন হলে বিশেষজ্ঞদের কাছে দেখানো উচিৎ।


 জানা গেছে যদি কুকুর এভাবে আক্রমন করে তাহলে গুরগাঁও এবং গাজিয়াবাদে সাম্প্রতিক ঘটনায় IPC ধারা ২৮৯ এবং অন্যান্য ধারার অধীনে একটি মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে। এর অধীনে মালিকের কারাদণ্ড বা জরিমানা রয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad