সন্ধ্যার পর এই ৫টি কাজ কখনই করবেন না, অশুভ ফল পাবেন - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 12 November 2022

সন্ধ্যার পর এই ৫টি কাজ কখনই করবেন না, অশুভ ফল পাবেন

 



সূর্যাস্তের সময় এই কাজটি করবেন না:


 আপনি নিশ্চয়ই অনেকবার বাড়ির বড়দের কাছ থেকে শুনেছেন যে সূর্যাস্তের পরে কাজ করা উচিৎ নয়। আমরা তাদের কথা শুনি কিন্তু প্রায়ই তাদের কুসংস্কার বলে উপেক্ষা করি। কিন্তু বাস্তবে এসবের পেছনে একটা গভীর অর্থ লুকিয়ে আছে, যা লঙ্ঘন করলে আমাদের চরম ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়। অনেক সময় অন্ধকারের পর এমন ভুল কাজ করে হাসতে-খেলে পরিবারগুলো নষ্ট হয়ে যায়। আজকে আমরা এমনই ৫টি কাজের কথা বলব, যেগুলো সন্ধ্যার পর কখনই করা উচিৎ নয়। 


সন্ধ্যায় ঘুমানো উচিৎ নয়


সন্ধ্যায়, যখন সূর্য অস্ত যায়, তখন ভুলেও ঘুমানো উচিৎ নয়। শাস্ত্রমতে, সকাল ও সন্ধ্যা দুটোই সে সময় মিশে যাচ্ছে। এই সময় ঘুম থেকে উঠে ভগবানকে স্মরণ করলে শুভ ফল পাওয়া যায়। এমতাবস্থায় যারা ওই সময় ঘুমিয়ে থাকেন, তারা এই পুণ্য লাভ থেকে বঞ্চিত হন। শুধু তাই নয়, সন্ধ্যায় ঘুমানোর ফলে তাদের রাতে ঘুম হয় না, যার কারণে তাদের রোগ হয়।


সূর্যাস্তের পর কাউকে ধার দেবেন না


জীবনে ধার নিয়ে জিনিসপত্রের লেনদেন চলে। কিন্তু সূর্যাস্তের পর কেউ যেন তার জিনিসপত্র ধার না দেয়। এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে এটি করলে মা লক্ষ্মী অসন্তুষ্ট হন, যার কারণে দারিদ্র্য ঘরে প্রবেশ করতে সময় লাগে না। 


সন্ধ্যায় ঘর অন্ধকার রাখবেন না


সূর্যাস্তের পর অশুভ শক্তির প্রভাব বাড়তে থাকে। এই ধরনের শক্তি অন্ধকারে আরও বিপজ্জনক হয়ে ওঠে। এমতাবস্থায় সূর্যাস্তের পর কখনই ঘর অন্ধকার রাখা উচিৎ নয়। এমনটা করলে নেতিবাচক শক্তির প্রবাহ বাড়তে পারে। পরিবর্তে, সন্ধ্যায় বাড়ির বাল্ব জ্বালিয়ে প্রভুর সামনে একটি প্রদীপ জ্বালান।


সূর্যাস্তের পর নখ কাটবেন না


সূর্যাস্তের পর নখ ও মাথার চুল কাটা অশুভ বলে মনে করা হয়। কথিত আছে যে এটি করলে বাড়িতে সম্পদের অভাবের পাশাপাশি স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যাও হয়। একই সময়ে, পরিবারে কলহ বাড়ে, তাই সন্ধ্যায় এই কাজটি পরিহার করা উচিৎ ।


বাড়িতে আসা অতিথিকে খাবার দিন


সনাতন সংস্কৃতিতে বাড়িতে আসা অতিথিকে ঈশ্বরের মর্যাদা দেওয়া হয়েছে। কথিত আছে যে কেউ যদি সন্ধ্যায় বাড়িতে আসে তাকে কখনই ক্ষুধার্ত অবস্থায় ফিরে যেতে দেবেন না। এটা বিশ্বাস করা হয় যে অতিথি যখন তার খাবার খেয়ে বাড়ি থেকে বের হয়, তখন তিনি পরিবারকে অনেক আশীর্বাদ দিয়ে চলে যান, যাতে পরিবারটি সমৃদ্ধ হয়।


বি.দ্র: এখানে দেওয়া তথ্য প্রচলিত বিশ্বাস ও মান্যতার ওপর ভিত্তি করে লেখা। প্রেসকার্ড নিউজ এটি নিশ্চিত করে না।



No comments:

Post a Comment

Post Top Ad