এভাবেই ফোন থেকে ফাঁস হয় ব্যক্তিগত ছবি-ভিডিও! ভুলেও এই ভুলগুলো করবেন না - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Thursday, 24 November 2022

এভাবেই ফোন থেকে ফাঁস হয় ব্যক্তিগত ছবি-ভিডিও! ভুলেও এই ভুলগুলো করবেন না


ফোন থেকে ব্যক্তিগত ছবি ফাঁস নতুন কোনও সমস্যা নয়। আগেও, ফোন থেকে ব্যক্তিগত ছবি ফাঁস হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ফোনে নিরাপত্তা থাকার পরও মোবাইল থেকে ভিডিও ও ছবি ফাঁস হয়ে যায়। এর অনেক কারণ থাকতে পারে। আজকের এই প্রতিবেদনে সেই কারণগুলি নিয়ে আলোচনা এবং ফোন থেকে ফটো-ভিডিও ফাঁস এড়াতে আপনি কী করতে পারেন তা জানার চেষ্টা করা যাক- 


১- এসবের প্রথম কারণটি বেশ সাধারণ এবং কোনও প্রযুক্তিগত জ্ঞানের প্রয়োজন নেই। আপনি যদি আপনার ব্যক্তিগত ছবি কাউকে পাঠিয়ে থাকেন এবং তিনি তা অন্য কাউকে ট্রান্সফার করেন, তাহলে ফটো ফাঁস হতে পারে। এছাড়াও, যদি কেউ আপনার ফোনের অ্যাক্সেস পেয়ে থাকেন, তবে তিনি তার ফোনে ফটো-ভিডিও স্থানান্তর করে ফাইল ফাঁস করতে পারেন।


এমন পরিস্থিতিতে আপনার মোবাইল লক করে রাখাই ভালো। এ ছাড়া আপনার ব্যক্তিগত ছবি কাউকে পাঠাবেন না, এটাই সব থেকে ভালো উপায়। কিন্তু, ছবি বা ভিডিও অন্যান্য কারণেও ফাঁস হতে পারে। তবে এর জন্য প্রযুক্তিগত জ্ঞান প্রয়োজন।


২- থার্ড পার্টি ক্ষতিকারক অ্যাপগুলিও ফটো-ভিডিও ফাঁসের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। অনেক ক্ষতিকারক বা ভাইরাস অ্যাপ আছে যেগুলো আপনার কাছ থেকে অনেক অনুমতি নেয়। এর সাথে, এই অ্যাপগুলি আপনার ফাইলগুলিতে অ্যাক্সেসও পেয়ে যায়। এই ফাইলগুলি রিমোর্ট‌ সার্ভারে আপলোড করা হয়, যেখান থেকে স্ক্যামাররা এই ফাইলগুলি থার্ড পার্টির কাছে বিক্রি করে এবং আপনার ছবি ফাঁস হয়ে যায়।


এমন পরিস্থিতিতে, এটি গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি সর্বদা অফিসিয়াল অ্যাপ স্টোর থেকে যেকোনও অ্যাপ ইনস্টল করুন। অ্যাপটি ইন্সটল করার আগে অবশ্যই এর রিভিউ দেখে নিন। থার্ড পার্টির অ্যাপ স্টোর বা ওয়েবসাইট থেকে তৈরি অ্যাপে ভাইরাস থাকতে পারে।


এছাড়া সোশ্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ব্যবহার করেও টার্গেটের ছবি বা ভিডিও অ্যাক্সেস করা যায়। এতে সামাজিক কৌশল অবলম্বন করে মানুষকে ফাঁদে ফেলা হয়। এর মাধ্যমে ইউজারের অ্যাকাউন্ট ও পাসওয়ার্ড পেয়ে যায় হ্যাকাররা।


৩- ক্লাউড ড্রাইভ থেকেও ডেটা লিক হতে পারে। গুগুল ড্রাইভ, ড্রপবক্সের মতো ক্লাউডে সংরক্ষিত ফটো বা নথি অ্যাক্সেস করতে এটি ব্যবহার করা হয়। এটি এড়াতে, ফিশিং ওয়েবসাইটে আপনার বিশদগুলি কখনই পূরণ করবেন না, সোশ্যাল মিডিয়া বা হোয়াটসঅ্যাপে পাওয়া অজানা লিঙ্কগুলি থেকেও সতর্ক থাকুন।


৪- হ্যাকাররা স্পাইওয়্যারের মাধ্যমেও মানুষকে টার্গেট করে। স্পাইওয়্যার অর্থাৎ গুপ্তচরবৃত্তি সফ্টওয়্যার আপনার ফোনের সম্পূর্ণ ডেটা অ্যাক্সেস করে। এর মধ্যে ফটো এবং ভিডিওগুলিও রয়েছে৷ এর মাধ্যমে হ্যাকাররা টার্গেটকে ব্ল্যাকমেইল করে বা এগুলো ফাঁস করে দেয়।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad