আতঙ্কের নাম ডেঙ্গু! আইডি কর্তার মৃত্যু, জেলায় জেলায় বাড়ছে দাপট - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 5 November 2022

আতঙ্কের নাম ডেঙ্গু! আইডি কর্তার মৃত্যু, জেলায় জেলায় বাড়ছে দাপট


রাজ্যে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে ডেঙ্গুর পরিস্থিতি। গত কয়েক বছরের তুলনায় এ বছর ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা রেকর্ড গড়েছে বলে স্বীকার করছেন স্বাস্থ্য বিভাগের কর্তারা। এ বছর ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৫০ হাজারের কাছাকাছি। সরকারিভাবে এখন পর্যন্ত রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮ হাজার ৫৭ জন। এদিকে, শুক্রবার কলকাতার বেলেঘাটের আইডি হাসপাতালের সহকারী সুপার অনির্বাণ হাজরা ডেঙ্গুর সংক্রমণে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। হাওড়ার আবাসিক স্বাস্থ্য আধিকারিকেল বয়স মাত্র ৪২ বছর।


হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ডেঙ্গু সংক্রমণের কারণে ১ নভেম্বর সেখানে ভর্তি হন অনির্বাণ। ডেঙ্গু চিকিৎসার নিয়ম অনুযায়ী চিকিৎসা শুরুও হয়।বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় হঠাৎ তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। প্লেটলেট কমে নামে ১৬ হাজারে। এরপর প্লেটলেট ট্রান্সফিউশনের পর পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসে। শুক্রবার সকালে আবারও অনির্বাণের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। হার্ট ও রক্তচাপের সমস্যা দেখা দেয়। তাকে দ্রুত সিসিইউতে নিয়ে চিকিৎসা শুরু করা হলেও তার জীবন বাঁচানো যায়নি।  


আইডি হাসপাতালের একটি সূত্রের মতে, কোভিডের অবস্থার মধ্যেও অনির্বাণ গুরুতর অসুস্থ ছিলেন। দীর্ঘ চিকিৎসার পর তিনি সুস্থ হন। সাম্প্রতিক দিনগুলোতে তার শরীরে ডেঙ্গুর সংক্রমণ পাওয়া যায়।


এদিকে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি রয়েছে, বেসরকারি খাতে মৃতের সংখ্যা পঞ্চাশের কম হলেও, এ বছর ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা সরকারিভাবে জানানো হয়নি। স্বাস্থ্য দফতর বলছে, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে কতজন মারা গিয়েছেন, তা জানতে একটি ডেথ অডিট চলছে। গত এক সপ্তাহে রাজ্যে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ৫,৩৯৬ জন। বর্তমানে, রাজ্যে ডেঙ্গু সংক্রমণের হারও উদ্বেগজনকভাবে বেড়ে হয়েছে ১২.৭ শতাংশে।

 

সংক্রামিতের সংখ্যার নিরিখে, কলকাতা সহ তিনটি জেলায় পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ, যার মধ্যে উত্তর চব্বিশ পরগনার পরিস্থিতি ভয়াবহ। সেখানে গত এক সপ্তাহে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ১১৬৬ জন। পাশাপাশি, গত এক সপ্তাহে মুর্শিদাবাদে ৮৬৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তৃতীয় স্থানে, গত এক সপ্তাহে কলকাতায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৬৮১ হয়েছে। রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের মতে, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, বসিরহাট, ডায়মন্ড হারবার, আলিপুরদুয়ার এবং পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় ডেঙ্গু সংক্রমণের হার দ্রুত বাড়ছে। সমগ্র রাজ্যের মধ্যে কলকাতায় সর্বাধিক ডেঙ্গু সংক্রমণের হার (২৪.৮ শতাংশ)। এর পরেই রয়েছে জলপাইগুড়ি ও হুগলি জেলা।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad