ফ্যাটি লিভার হওয়ার লক্ষণ কী এবং কীভাবে আপনি এটি সনাক্ত করতে পারেন - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 12 November 2022

ফ্যাটি লিভার হওয়ার লক্ষণ কী এবং কীভাবে আপনি এটি সনাক্ত করতে পারেন


ফ্যাটি লিভার একটি রোগ যা খারাপ জীবনধারা এবং খাদ্যাভ্যাসের কারণে ঘটে। যাইহোক, ফ্যাটি লিভার দুই ধরনের হয়, প্রথমটি অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার এবং দ্বিতীয়টি নন-অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার।  ফ্যাটি লিভার হওয়ার লক্ষণ কী এবং কীভাবে আপনি এটি সনাক্ত করতে পারেন।


এটি ঘটে ফ্যাটি লিভার 

লিভারে যখন খুব বেশি চর্বি জমে তখন তাকে ফ্যাটি লিভার বলে। লিভার পিত্তের রস তৈরি করে যা লিভার থেকে টক্সিন বের করে দিতে সাহায্য করে। এছাড়া এই জুস শরীরের জন্য প্রোটিন তৈরিতে সাহায্য করে। শুধু তাই নয়, এটি আয়রন এবং প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদানকে শক্তিতে রূপান্তরিত করে। লিভারে চর্বির পরিমাণ বেড়ে গেলে তা আমাদের কার্যকারিতায় সমস্যা সৃষ্টি করতে শুরু করে।


অ্যালকোহলিক এবং নন-অ্যালকোহলিক

ফ্যাটি লিভার কী দুটি ধরণের ফ্যাটি লিভার রয়েছে, যার মধ্যে অ্যালকোহলযুক্ত ফ্যাটি লিভার অতিরিক্ত অ্যালকোহল পান করার কারণে হয়। যারা অ্যালকোহল পান করেন না এবং তবুও তাদের লিভারে চর্বি জমে, তখন তাকে নন-অ্যালকোহলিক ফ্যাটি লিভার বলে। এই দুই অবস্থাতেই লিভার সিরোসিসের সম্মুখীন হতে হয়।


লিভার সিরোসিসের লক্ষণ

লিভার সিরোসিস একটি অত্যন্ত মারাত্মক রোগ। এতে লিভারের কোষগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়, যার কারণে লিভার ঠিকমতো কাজ করতে পারে না। এই সমস্যা যখন খুব বেশি বেড়ে যায় তখন তাকে বলা হয় অ্যাডভান্সড সিরোসিস। লিভার সিরোসিসের লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে ক্লান্তি, ক্ষুধামন্দা, বমি, পা ফুলে যাওয়া, ওজন কমে যাওয়া, ত্বকে চুলকানি ইত্যাদি।


এইভাবে ফ্যাটি লিভারের ঝুঁকি হ্রাস করুন 

ফ্যাটি লিভারের ঝুঁকি কমাতে আপনার খাদ্যতালিকায় স্বাস্থ্যকর জিনিস যেমন ফল, সবজি, গোটা শস্য ইত্যাদি অন্তর্ভুক্ত করা উচিত। যদি আপনার ওজন বেড়ে যায়, তাহলে ব্যায়াম করে ওজন কমিয়ে ফেলুন। এটি সিরোসিসের ঝুঁকি কমাতেও সাহায্য করবে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad