সাবধানে তুলসী খান, উপকারের বদলে ক্ষতি হতে পারে - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Thursday, 17 November 2022

সাবধানে তুলসী খান, উপকারের বদলে ক্ষতি হতে পারে


ছোটবেলা থেকেই আমরা সবাই পড়ে আসছি যে তুলসী খুবই উপকারী। চিকিৎসাশাস্ত্রে একে অমৃতের মতো ওষুধ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এই কারণেই লোকেরা এটিকে কোনও না কোনও আকারে সেবন করার চেষ্টা করে।আপনিও নিশ্চয়ই তুলসীর উপকারিতা শুনেছেন আপনার নানী-নানীর কাছ থেকে। এই কারণেই এর উপকারিতা সম্পর্কে সবাই জানেন, কখন এটি খাওয়া ক্ষতিকর হতে পারে সে সম্পর্কে অনেকেই এখনও অবগত নন। 


1. অতিরিক্ত গ্রহণ করা ঠিক নয়: 

তুলসী খাওয়ার কিছু অসুবিধাও হতে পারে। আসলে, আয়ুর্বেদাচার্য চিকিত্সকদের মতে, তুলসী পাতায় প্রজননরোধী বৈশিষ্ট্য পাওয়া যায়। এমন পরিস্থিতিতে আপনি যদি বেশি করে তুলসী খান তাহলে আপনার স্পার্ম কাউন্ট কমে যেতে পারে।


2. দাঁত ক্ষয়ের ঝুঁকি: 

তুলসী পাতায় পারদ এবং আয়রন থাকে। একই সঙ্গে এতে আর্সেনিকও রয়েছে। আপনি যদি এটি খুব বেশি চিবিয়ে খান, তাহলে আপনার দাঁতের ক্ষতি হতে পারে। তাই যোগ্য চিকিৎসক বা বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ছাড়া অতিরিক্ত পরিমাণে তুলসী খাবেন না।


3. রক্ত ​​পাতলা হতে পারে: 

আসলে তুলসীতে রক্ত ​​জমাট বাঁধা প্রতিরোধ করার গুণ রয়েছে। অতিরিক্ত তুলসী সেবনে রক্ত ​​পাতলা হওয়ার আশঙ্কাও থাকে।


4. গর্ভাবস্থায় খাওয়া বা না খাওয়া : 

গর্ভাবস্থায় তুলসী খাওয়া উচিত কি না তা নিয়ে অনেক গবেষণা প্রতিবেদনে বিভিন্ন মতামত দেওয়া হয়েছে। তুলসীতে প্রজননরোধী বৈশিষ্ট্য পাওয়া যায়, তাই এটি অল্প পরিমাণে খান বা একেবারেই খাবেন না।


 তুলসীকে পবিত্র তুলসীও বলা হয়। তুলসী পাতা ভারতে খুবই উপকারী বলে বিবেচিত হয়। তুলসী এমন একটি উদ্ভিদ, যা প্রতিটি বাড়িতে সহজেই পাওয়া যায়। এটি প্রায়শই ওষুধ হিসাবে ব্যবহৃত হয়। এই 'মেডিকেল ভেষজ' এর অনেক প্রকার রয়েছে, যার মধ্যে রাম তুলসী এবং কৃষ্ণ তুলসী সবচেয়ে সাধারণ।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad