রোজ পটল খেলে দূরে থাকবে বহু রোগ - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 21 January 2023

রোজ পটল খেলে দূরে থাকবে বহু রোগ

 







পটল এমন অনেক উপাদানে পরিপূর্ণ, যা স্বাস্থ্য সম্পর্কিত অনেক গুরুতর সমস্যা দূর করে। যদি প্রতিদিন পটল খাওয়া হয় তবে এটি ডায়াবেটিস, হৃদরোগ এবং রক্তশূন্যতার মতো রোগ নিরাময় করে।জেনে নিন আপনার প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় পটল অন্তর্ভুক্ত করলে শরীর কী কী স্বাস্থ্য উপকার পেতে পারেন এবং কেন এটি প্রতিদিন খাওয়া উচিৎ।

১. রক্তের অভাব পূরণ করে:
আপনি যদি রক্তস্বল্পতার ঘাটতি পূরণ করতে চান তাহলে আপনি আপনার প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় পটলকে অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি, ভিটামিন সি এবং আয়রন রয়েছে। অ্যানিমিয়া ঘাটতি এটির ব্যবহারে দূর হয়, অন্যদিকে এটি ক্লান্তি এবং শরীরের ব্যথার মতো অন্যান্য সমস্যাগুলিও দূর করতে সহায়তা করে।

২. হজম ক্ষমতা সুস্থ রাখে:
আপনি যদি হজম শক্তিকে শক্তিশালী রাখতে চান এবং কোষ্ঠকাঠিন্য, পেট ফাঁপা এবং আলসারের সমস্যা দূর করতে চান, তাহলে পরওয়াল খাওয়া খুবই উপকারী বলে প্রমাণিত হয়, এতে এমন কিছু কণা পাওয়া যায় যা অন্ত্রের খাদ্য কণাকে ভেঙে ফেলতে সাহায্য করে। এটি খুবই কার্যকরী প্রমাণিত হয় এবং সেই কারণেই পরওয়ালের ব্যবহার হজম ক্ষমতাকে শক্তিশালী রাখার জন্য অত্যন্ত উপকারী বলে প্রমাণিত হয়।

৩ হার্টের স্বাস্থ্য সুস্থ রাখে:
আপনি যদি আপনার হৃৎপিণ্ডের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে চান, তাহলে পটল খাওয়া খুবই উপকারী। এতে প্রাকৃতিকভাবে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরির মতো অনেক উপাদান রয়েছে, যা হার্টের স্বাস্থ্য ভালো রাখে।  আপনি যদি হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি রোধ করতে চান, তাহলে আপনি আপনার প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় পারওয়ালকে অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন।

৪. হাড় মজবুত করে:
হাড় মজবুত রাখতে চাইলে পরওয়াল সেবনে খুবই উপকারী এবং দাঁত সংক্রান্ত অনেক সমস্যাও এর সেবনে দূর হয়। যদি পরওয়াল প্রতিদিন প্রচুর পরিমাণে খাওয়া হয় তাহলে ফ্র্যাকচারের ঝুঁকি চলে যায়, অন্যদিকে এটি অস্টিওআর্থারাইটিস এবং অস্টিওপোরোসিসের মতো হাড়-সম্পর্কিত রোগের ঝুঁকিও কমায়।

৫. ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করে:
আপনি যদি ডায়াবেটিস রোগ নিয়ন্ত্রণ করতে চান তবে পটলের সেবন অত্যন্ত উপকারী বলে প্রমাণিত হয়, এর ব্যবহার মেটাবলিজম উন্নত করে এবং উচ্চ রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। অ্যান্টি-গ্লাইসেমিক জাতীয় অনেক গুড় এতে প্রচুর পরিমাণে পাওয়া যায়, যা ইনসুলিন নিঃসরণকে উদ্দীপিত করে, তাই ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য পটলের ব্যবহার উপকারী।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad