প্রয়াত আধ্যাত্মিক গুরু সিদ্ধেশ্বর স্বামী, শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রী-মুখ্যমন্ত্রীর - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Monday, 2 January 2023

প্রয়াত আধ্যাত্মিক গুরু সিদ্ধেশ্বর স্বামী, শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রী-মুখ্যমন্ত্রীর


প্রয়াত কর্ণাটকের বিজয়পুরের জ্ঞান যোগাশ্রমের সাধক তথা আধ্যাত্মিক গুরু সিদ্ধেশ্বর স্বামী।  সোমবার রাতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। দু'দিন আগে প্রধানমন্ত্রী ফোন করে তার শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন। গত কয়েকদিন ধরে তিনি অসুস্থ ছিলেন। স্বামীজি পাঁচ বছর আগে পদ্মশ্রী পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করার পরে লাইমলাইটে এসেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখে এই তথ্য জানিয়েছেন তিনি।


তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। স্বামীজির মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বাসভরাজ বোমাই ও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা সিদ্দারামাইয়াও।



প্রধানমন্ত্রী ট্যুইট করেছেন, "পরমপুজ্য শ্রী সিদ্ধেশ্বর স্বামী'জিকে সমাজের তাঁর উৎকৃষ্ট সেবার জন্য স্মরণ করা হবে। তিনি অন্যদের উন্নতির জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করেছিলেন এবং তাঁর পাণ্ডিত্য উদ্যোগের জন্যও সম্মানিত ছিলেন।  এই দুঃসময়ে তাঁর অসংখ্য ভক্তের সঙ্গে আমার সমবেদনা। ওঁম শান্তি।"





কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বাসভরাজ বোমাই ট্যুইট করে লিখেছেন- বিজয়পুরের জ্ঞান যোগাশ্রমের সাধক শ্রী সিদ্ধেশ্বর স্বামী'জির মৃত্যুর খবর শুনে খুবই খারাপ লাগছে। তিনি তাঁর বক্তৃতার মাধ্যমে মানবজাতির মুক্তির চেষ্টা করতেন। স্বামী'জীর চলে যাওয়া এক অপূরণীয় ক্ষতি। তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করছি। ঈশ্বর সারা দেশের ভক্তদের এই শোক সহ্য করার শক্তি দিন। ওঁম শান্তি।"



কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এবং কংগ্রেস নেতা সিদ্দারামাইয়া ট্যুইট করে লিখেছেন- "জ্ঞান যোগাশ্রমের সাধক শ্রী সিদ্ধেশ্বর স্বামীজির মৃত্যুর খবর অত্যন্ত বেদনাদায়ক। এক অপূরণীয় ক্ষতি।  জ্ঞান যোগাশ্রমের সাধক শ্রী সিদ্ধেশ্বর স্বামীজির মৃত্যু সংবাদ অত্যন্ত বেদনাদায়ক। শ্রী সিদ্ধেশ্বর স্বামীজির দিব্য আত্মা অনন্ত শান্তিতে থাকুক।  আমি প্রার্থনা করি যে ঈশ্বর মঠের অনুসারী এবং ভক্তদের তাঁর মৃত্যুর এই ক্ষতি সহ্য করার শক্তি দিন।"


উল্লেখ্য, সিদ্ধেশ্বর স্বামী ২০১৮ সালে লাইমলাইটে এসেছিলেন যখন তিনি পদ্মশ্রী পুরষ্কার গ্রহণ করতে অস্বীকার করেছিলেন। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখেছেন তিনি। পদ্মশ্রী পুরষ্কার প্রদানের জন্য ভারত সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে কর্ণাটকের বিজয়পুরের বাসিন্দা আধ্যাত্মিক গুরু বলেন, তিনি এখন একজন তপস্বীর জীবন গ্রহণ করেছেন। একজন সন্ন্যাসী এবং আধ্যাত্মিক ব্যক্তি হওয়ার কারণে পুরষ্কারটি তার কাছে তেমন কোনও গুরুত্ব রাখে না। তিনি বলেন, 'আমি একজন সন্ন্যাসী। এখন আমার এমন পুরষ্কারের দরকার নেই।  আমি সম্মানের সাথে এই পুরষ্কার ফিরিয়ে দিচ্ছি।'

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad