গঙ্গাসাগর মেলায় রেকর্ড ভিড়ের আশা! নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 13 January 2023

গঙ্গাসাগর মেলায় রেকর্ড ভিড়ের আশা! নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার



বাংলায় ১০ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে গঙ্গাসাগর মেলা।  এ বছর কুম্ভ মেলা না থাকায় এবার সাগর দ্বীপে বিপুল ভিড়ের আশা করছে রাজ্য প্রশাসন।  রাজ্য সচিবালয় নবান্ন সহ দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসন মেলা পর্যবেক্ষণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।  এবার লাইভ টেলিকাস্টের মাধ্যমে পর্যবেক্ষণ করা হবে গঙ্গাসাগর মেলা।  নবান্ন সরাসরি মেলার মাঠ পর্যন্ত তীর্থযাত্রীদের চলাচলের দেখাশোনা করবে।  এদিকে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বৃহস্পতিবার কলকাতার আউটগ্রাম ঘাটে পরিষেবা শিবিরের উদ্বোধন করেছিলেন এবং গঙ্গাসাগর মেলা প্রাঙ্গণে বারাণসীর আদলে গঙ্গা আরতির আয়োজন করা হয়েছিল।



 গঙ্গাসাগরের মেলায় যেতে কলকাতায় পৌঁছতে শুরু করেছে পুণ্যার্থীরা।  তাদের জন্য কলকাতার আউটগ্রাম ঘাটে একটি অস্থায়ী ক্যাম্প করা হয়েছে।  আউটগ্রাম ঘাট থেকে গঙ্গাসাগরের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেছেন পুণ্যার্থীরা।



পুলিশের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ভিড়ের দিকে নজর রাখতে মেলার বিভিন্ন স্থানে ক্যামেরা বসানো হয়েছে।  ড্রোনের মাধ্যমে মনিটরিং করা হচ্ছে।  আর মেলার কন্ট্রোল রুমে সরকারি আধিকারিকরা তাঁর ছবি দেখার সঙ্গে সঙ্গে তাঁর একটি ফিডও পাঠানো হচ্ছে নবান্নে।  সেখান থেকে আরেকটি মনিটরিং অব্যাহত থাকবে।  সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিম হাজরা ১০ জানুয়ারি গঙ্গাসাগর মেলায় এই মনিটরিং সংক্রান্ত কন্ট্রোল রুম উদ্বোধন করেন।  নবান্নে ফিড পাঠানোর কাজ শুরু হয়েছে ১০ জানুয়ারি থেকে।  আগামী ১৫ জানুয়ারি মকর সংক্রান্তি।  ওইদিন সাগর দ্বীপে সবচেয়ে বেশি ভিড় হবে।  এজন্য যাত্রীদের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।  তাই সিসিটিভি ক্যামেরায় ছেয়ে গেছে গঙ্গাসাগর মেলার মাঠ।  অনেক ড্রোন থেকে নজরদারি চলছে।  কপিল মুনির আশ্রমের সামনে সিসিটিভি বসানো হয়েছে।



 প্রশাসনিক আধিকারিকদের কাছ থেকে জানা গেছে, গঙ্গাসাগর মেলায় তীর্থযাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য প্রায় ১১০০ সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো হয়েছে।  ২০টি ড্রোন ক্যামেরা উড়ছে এবং সেগুলো জিপিএস দিয়ে সজ্জিত।  এই ক্যামেরা দিয়ে তীর্থযাত্রীদের মনিটরিং করা হচ্ছে।  অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করছে জেলা প্রশাসন।  বৃহস্পতিবার কলকাতা থেকে গঙ্গাসাগর ট্রানজিট পয়েন্টের উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে সেখানে সিসিটিভি ক্যামেরারও ব্যবস্থা করা হয়েছে।  যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই এই মনিটরিং ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রশাসন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad