সকালে ঘুম থেকে ওঠার সাথে সাথে প্রতিদিন এই ১টি আসন করুন - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Sunday, 24 April 2022

সকালে ঘুম থেকে ওঠার সাথে সাথে প্রতিদিন এই ১টি আসন করুন


কপালভাতি প্রাণায়াম শরীরের জন্য খুবই উপকারী। এটি আপনাকে স্ট্রেস দূর করা থেকে শুরু করে ওজন কমাতে অনেক সুবিধা নিয়ে আসে। যোগ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কপালভাতি নিয়মিত অভ্যাস করলে প্রাচীনতম রোগও সেরে যায়। আপনি যদি রোগ এড়াতে চান, তাহলে অবশ্যই কপালভাটি করে দেখুন।  


কপালভাতি কি?

কপালভাতি যোগ হল শতকর্মের (হঠযোগ) একটি পদ্ধতি (ক্রিয়া)। সংস্কৃতে কপাল মানে কপাল বা কপাল আর ভাটি মানে তীক্ষ্ণ। অর্থাৎ 'কপাল ভাটি' সেই প্রাণায়াম, যার দ্বারা মস্তিষ্ক পরিষ্কার থাকে এবং এই অবস্থায় মস্তিষ্কের কার্যকারিতা সুষ্ঠুভাবে চলে। 


কিভাবে কপালভাটি করবেন?

একটি যোগ মাদুরে বসুন এবং আপনার মেরুদণ্ড সোজা রাখুন।

এর পরে, আপনার হাঁটুতে আপনার হাত রাখুন এবং একটি গভীর শ্বাস নিন। 

এখন শ্বাস ছাড়ার সময় ধীরে ধীরে পেট ভেতরের দিকে টেনে নিন। 

আপনার নাভি ভিতরের দিকে টানুন এবং কয়েক সেকেন্ডের জন্য শ্বাস ছাড়ুন। 

আপনি একবারে ৩৫ থেকে ১০০ বার এটি করেন। 

এক রাউন্ড শেষ হলে বিশ্রাম নিন।

ধীরে ধীরে এই সহজের মেয়াদ বাড়ান। 

কপালভাটি করার পর কিছুক্ষণ তালি দাও।


কপালভাতি প্রাণায়ামের উপকারিতা:-

হাঁপানি রোগীরা এই প্রাণায়াম করলে দারুণ আরাম পায়।

বিশেষ বিষয় হল এটি চোখের নিচের কালো দাগও নিরাময় করে।

এটি নিয়মিত করলে মেটাবলিজম বাড়ে এবং ওজন কমতে থাকে।

এই প্রাণায়াম করলে ঘুমের মান উন্নত হয়।

কপালভাতি করলে স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি পায় এবং মস্তিষ্কও দ্রুত কাজ করে।

এই প্রাণায়াম শরীর থেকে টক্সিন দূর করতে সহায়ক।

এটি নিয়মিত করলে খেলোয়াড়দের খেলাধুলা বাড়ে।


কপালভাতি করার সময়: 

কপালভাতি করারসময় এই জিনিসটি মনে রাখবেন, মনে রাখবেন আপনার নেওয়া বাতাস এক ঝটকায় বেরিয়ে আসে। এই প্রাণায়াম করার সময় আপনাকে ভাবতে হবে আপনার সমস্ত নেতিবাচক উপাদান শরীর থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad