সাহস থাকলে আমাকে গ্রেপ্তার করুন, আমি হনুমান চালিসা পড়ি, ঠাকরে সরকারকে চ্যালেঞ্জ ফড়নবীসের - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 26 April 2022

সাহস থাকলে আমাকে গ্রেপ্তার করুন, আমি হনুমান চালিসা পড়ি, ঠাকরে সরকারকে চ্যালেঞ্জ ফড়নবীসের



 মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এবং ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিস হনুমান চালিসা ইস্যুতে মহা বিকাশ আঘাদি সরকারকে নিন্দা করেন।  ফড়নবীস তার প্রেস কনফারেন্সে হনুমান চালিসার কয়েকটি লাইন বলেন এবং উদ্ধব ঠাকরে সরকারকে এখনই তাকে গ্রেপ্তার করার জন্য চ্যালেঞ্জ করেন।  অমরাবতী সাংসদ নবনীত রানা এবং তার বিধায়ক স্বামী রবি রানার গ্রেপ্তারের তীব্র নিন্দা জানিয়ে ফড়নবীস বলেন, রানা দম্পতি কেবল তাদের উদ্দেশ্য প্রকাশ করেন যে তাদের মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে হনুমান চালিসা পড়তে হবে।  তিনি কি কিছু প্রতিবাদ করার কথা বলেছেন?  নাকি তার বাসায় গিয়ে হামলার কথা ছিল?  হনুমান চালিসা নিয়ে এত হট্টগোল কেন?  হনুমান চালিসা ভারতে না পড়লে পাকিস্তানে পড়বে?  বললেন ফড়নবীস।



 ফড়নবীস আরও বলেন, "এই সরকার খুব বেশি করছে এবং তাদের মনোভাবও অসভ্য।  আপনি একজন মহিলার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে তার বাড়ির নীচে 100 জনের বেশি লোক পাঠান।  তারপর আপনি সেই মহিলাকে হেফাজতে নিয়ে যান।  পুলিশ যখন সেই দম্পতিকে গ্রেপ্তার করে, তখন আপনি তাদের আনন্দ প্রকাশ করেন যেন আপনি পাকিস্তানের সাথে যুদ্ধ জিতেছেন।" 





 পুলিশের গৃহীত পদক্ষেপকে বেআইনি বলে বর্ণনা করে, ফড়নবীস বলেন, "প্রথম দিনে তার বিরুদ্ধে কিছু ভিন্ন অভিযোগ আরোপ করা হয়েছিল কিন্তু পরের দিন রাষ্ট্রদ্রোহের ধারা আরোপ করা হয়েছিল।  এর মানে কি তিনি সরকার পতন ঘটাচ্ছেন?  হনুমান চালিসা বলা বা পাঠান যদি দেশদ্রোহিতা হয়, তাহলে আমরা প্রতিদিনই করব।  আমি এখন হনুমান চালিসা পড়ছি, সাহস থাকলে আমাকে গ্রেফতার করুন।" 

 



  অমরাবতীর সাংসদ নবনীত রানা এবং তার বিধায়ক স্বামী রবি রানা রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় মুম্বাই সেশন কোর্ট থেকেও মুক্তি পাননি।  তাকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত বিচার বিভাগীয় হেফাজতে থাকতে হবে।  এরপরই জামিন আবেদনের শুনানি হবে।  এদিকে, আদালত ২৯ এপ্রিল রানা দম্পতির আবেদনের জবাব দিতে রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে। মুম্বাই দায়রা আদালত আজ (২৬ এপ্রিল, মঙ্গলবার) তাদের জামিনের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad