কালবৈশাখীর দাপটে ২ জনের মৃত্যু, ব্যাহত ট্রেন-বিমান পরিষেবা - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 21 May 2022

কালবৈশাখীর দাপটে ২ জনের মৃত্যু, ব্যাহত ট্রেন-বিমান পরিষেবা

 


কালবৈশাখীর ঝড় শনিবার বিকেলে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বহু জেলায় আছড়ে পড়ে।  দুপুর থেকেই কালো মেঘে ঢাকা কলকাতার আকাশ। আচমকা খুব দ্রুত বাতাস বইতে লাগল।  কিছুক্ষণ পর বৃষ্টি শুরু হয়।  এই ঝড়ের জেরে কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় গাছ ভেঙে পড়েছে।  কলেজ স্ট্রিট এবং সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউর মতো বেশ কয়েকটি রাস্তা জলে তলিয়ে গেছে।  সাউদার্ন অ্যাভিনিউতে গাছ ভেঙে পড়েছে।  কলকাতা ছাড়াও কালবৈশাখী আঘাত হানছে মেদিনীপুর, বাঁকুড়া, হাওড়া, হুগলি ও বর্ধমানে।  ঝড়ের কবলে পড়ে দুই যুবকের মৃত্যু হয়েছে।  বাঁকুড়া শহরে গাছ পড়ে গুরুতর জখম হন এক ব্যক্তি।  ঝড়ের সময় গাছ উপড়ে পড়ায় যান চলাচল ব্যাহত হয়।


  

  শনিবার বিকেলে বর্ধমানে ঝড়-বৃষ্টি হয়েছে।  সেই সময় বর্ধমান শহরের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের হরেডাঙ্গা এলাকায় একটি বন্ধ চায়ের স্টলে ক্যারাম খেলছিল তিন নাবালক।  ঝড়ের সময় চায়ের দোকানের ওপর গাছ ভেঙে পড়ে।  এতে শেখ অ্যালিসন (১৪) নামে এক নাবালকের মৃত্যু হয়।  আহত দুই নাবালককে উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।  সেখানে তার চিকিৎসা চলছে।  খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান বর্ধমানের বিধায়ক খোকন দাস ও প্রশাসনের আধিকারিকরা।  নিহত সুনীল নাথ (৩২) শ্রীরামপুরের ঘোরমারা পশ্চিমপাড়া মল্লিকপাড়া এলাকার বাসিন্দা। আম কুঁড়োতে গিয়ে  ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।  খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় শ্রীরামপুর থানার পুলিশ।



শনিবার গাছ পড়ে বেহালা ও বাঁকুড়ায় দুজন আহত হয়েছেন।  বাঁকুড়া শহরের শারদাপল্লী এলাকায় ঝড়ে গাছ ভেঙে পড়েছে।  গাছ পড়ে একজন আহত হয়েছে।  তাঁকে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়।  অন্যদিকে, বেহালা রায়বাহাদুর রোডের কৃষ্ণচূড়া গাছ রিকশায় পড়ে যায়।  গাছ পড়ে গেলেও অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান রিকশাচালক।  ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে বেহালা থানার পুলিশ।  দত্তবাদ সল্টলেকের আনন্দপুরে ঝড়ে গাছ ভেঙে পড়েছে।  এতে তিনটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।  এছাড়াও একজন আহত হয়েছেন।  তাকে চিকিৎসার জন্য বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।  সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউতে অবস্থিত বিজেপি সদর দফতরের কাছে একটি গাছ পড়ে গেছে।  হেদুয়ার কাছে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে গেছে।



ঝড়ের জেরে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় গাছ ভেঙে পড়েছে।  এতে বিভিন্ন এলাকায় যানবাহন চলাচল ব্যাহত হয়।  ট্রেন চললেও বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।  ঝড় ও বৃষ্টির কারণে মেট্রো রেল পরিষেবাও ব্যাহত হয়েছে।  নেতাজি ও মহানায়ক উত্তম কুমার মেট্রো স্টেশনের মধ্যে আপ লাইনে একটি গাছ পড়ে যায়।  এ কারণে কবি সুভাষ থেকে আপ ও ডাউন ২ লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।  ভেঙে পড়া গাছ সরিয়ে মেট্রো চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।  হাওড়া ডিভিশনের শেওড়াফুলি স্টেশনে ওভারহেড বজ্রপাতে আগুন লেগেছে।  এতে এক নম্বর লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।  দত্তপুকুর স্থানীয় হৃদয়পুর স্টেশনে প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গেই প্যান্টোগ্রাফের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।  এ কারণে আপ লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।  রেল বিভাগের কর্মচারীদের প্রচেষ্টায় ট্রেন চলাচল এখন স্বাভাবিক হয়েছে।  গাছ কাটার কারণে বাঁকুড়া-ঝাড়গ্রাম রাজ্য সড়কেও যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।  বিমানবন্দর সূত্রে জানা গেছে, ঝড়ের সময় ফ্লাইটও স্থগিত করা হয়েছে।  প্রায় দেড় ঘণ্টা কলকাতা বিমানবন্দরে পুরো বিমান পরিষেবা ব্যাহত হয়।


No comments:

Post a Comment

Post Top Ad