জানুন মাঙ্গলিক দোষ কী ও এর প্রতিকার - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Sunday, 1 May 2022

জানুন মাঙ্গলিক দোষ কী ও এর প্রতিকার

 






হিন্দু ধর্মে, বিয়ের আগে একজন যুবক এবং একজন মহিলার রাশিফল ​​মেলানো হয়।  রাশিফল মিল করার সময় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে জিনিসটি দেখা যায় তা হল মাঙ্গলিক দোষ।



জ্যোতিষীদের মতে, দু'জনের  যদি কুণ্ডলীতে মাঙ্গলিক দোষ থাকে তবে বিয়ে হয় না। 



এক্ষেত্রে যুবক এবং মেয়ে উভয়েরই মাঙ্গলিক হওয়া আবশ্যক, অন্যথায় ভবিষ্যতে কিছু অশুভ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। 



 মাঙ্গলিক কুন্ডলির ৩ প্রকার আছে, এটা অনেকেই জানেন,যথা- সাধারণ মাঙ্গলিক, দিবাল মাঙ্গলিক এবং উপজাতীয় মাঙ্গলিক।



 সাধারণ মাঙ্গলিক কুণ্ডলি: মঙ্গল যখন কোনও ব্যক্তির কুণ্ডলীতে ১ম, ৪র্থ, ৭ম, ৮ম, দ্বাদশ ঘরে থাকে, তখন এমন রাশিফলকে সাধারণ মাঙ্গলিক বলা হয়।


 দ্বিবল মাঙ্গলিক কুন্ডলি:


 মঙ্গল যখন একজন ব্যক্তির কুণ্ডলীতে ১ম, ৪ম, ৭ম, ৮ম, ১২ তম ঘরে থাকে এবং তার দুর্বল রাশি কর্কটের সাথে তখন মঙ্গলের ক্ষতিকারক প্রভাব দ্বিগুণ হয়।  অথবা মঙ্গল ছাড়াও সূর্য, শনি, রাহু-কেতুর যে কোনো গ্রহ ১ম, ৪র্থ, ৭ম, ৮ম, দ্বাদশ ঘরে বসে থাকলে তার রাশিটি দিব্য মাঙ্গলিক হয়।

 

 উপজাতীয় মাঙ্গলিক কুন্ডলী:


 মঙ্গল যখন কোন ব্যক্তির জন্মকুণ্ডলীতে ১ম, ৪র্থ, ৭ম, ৮ম, দ্বাদশ ঘরে থাকে, তখন তার দূর্বল রাশি কর্কট রাশির সাথে শনি, রাহু, কেতুও এই ঘরে বসে থাকে, তখন মঙ্গলের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়।   এই ধরনের রাশিফলকে উপজাতীয় মাঙ্গলিক বলা হয়।



 মাঙ্গলিক দোষ দূর করার প্রতিকার:


 মাঙ্গলিক দোষের অশুভ প্রভাব কমাতে একজন যোগ্য জ্যোতিষীর পরামর্শ নেওয়া উচিৎ, অন্যথায় বিবাহে ঝামেলা হতে পারে।  এছাড়াও, নিম্নলিখিত সাধারণ ব্যবস্থাগুলিও নেওয়া যেতে পারে



 মঙ্গল গ্রহের প্রভাব কমাতে মাঙ্গলিক ব্যক্তিদের শিব ও হনুমান জির পূজা করা উচিৎ।



মঙ্গলবার হনুমানজিকে ছোলা নিবেদন করুন এবং হনুমান চালিসা পাঠ করুন।


 জলে লাল চন্দন বা সামান্য কুমকুম পাউডার যোগ করে স্নান করুন।



 মাঙ্গলিক দোষের অশুভ প্রভাব এড়াতে মঙ্গলের রত্ন প্রবালের সঙ্গে পরতে হবে।


 গম, মসুর, তামা, সোনা, লাল ফুল, লাল কাপড়, লাল চন্দন, জাফরান, কস্তুরী, লাল ষাঁড়, জমি ইত্যাদি দান করুন।



 বাড়িতে মঙ্গল যন্ত্র স্থাপন করুন এবং প্রতিদিন এটির পূজো করুন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad