অর্জুন মৃত্যু মামলা: শরীরে নেই আঘাতের চিহ্ন, হাইকোর্টে জমা পড়ল ময়নাতদন্তের রিপোর্ট! তদন্ত করবে রাজ্য পুলিশই - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 10 May 2022

অর্জুন মৃত্যু মামলা: শরীরে নেই আঘাতের চিহ্ন, হাইকোর্টে জমা পড়ল ময়নাতদন্তের রিপোর্ট! তদন্ত করবে রাজ্য পুলিশই


কাশীপুরে বিজেপির যুব মোর্চার নেতা অর্জুন চৌরাসিয়া খুন নিয়ে আশঙ্কার অবসান ঘটছে। পোস্টমর্টেম রিপোর্টে আত্মহত্যার লক্ষণ পাওয়া গেছে। কাশীপুরে মৃত যুব মোর্চা নেতার পোস্টমর্টেম রিপোর্টে এমনই জানা গিয়েছে। মৃত বিজেপি যুব নেতার ময়নাতদন্ত হয়েছে কমান্ড হাসপাতালে। মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তবের আদালতে সিল করা ময়নাতদন্ত রিপোর্ট জমা দেওয়া হয়। রিপোর্টে মৃত্যুর কারণ ফাঁসি হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। রিপোর্টে অর্জুন চৌরাসিয়ার শরীরে কোনও আঘাতের চিহ্ন নেই। অর্জুনের সাথে কোনও ঝগড়া হয়নি। ফলে প্রাথমিক ময়নাতদন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী কাশীপুরের ঘটনায় হত্যার কোনও লক্ষণ পাওয়া যায়নি। রাজ্য সরকারের কাছে রিপোর্ট হস্তান্তর করেছে হাইকোর্ট। এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে ১৯ মে।


শুনানির সময়, সিনিয়র আইনজীবী তথা বিজেপি নেত্রী প্রিয়াঙ্কা তিব্রেওয়াল এবং অ্যাডভোকেট সুনীল সান্যাল বলেন যে, অর্জুন নির্বাচনের পরবর্তী সহিংসতার শিকার হয়েছে। প্রিয়াঙ্কা তিব্রেওয়াল বলেছেন, মৃত বিজেপি যুব নেতাকে হুমকি দেওয়া হয়েছিল। অন্যদিকে, হাইকোর্ট স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, মৃত বিজেপি যুব নেতার মৃত্যুর তদন্ত করবে রাজ্য পুলিশ।


কয়েকদিন আগেই কাশীপুরে রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয় বিজেপি কর্মী অর্জুন চৌরাসিয়ার। কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে কমান্ড হাসপাতালে প্রায় তিন ঘন্টা ধরে তাঁর দেহের ময়নাতদন্ত হয়। কমান্ড হাসপাতালে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে ময়নাতদন্ত করা হয়। ময়নাতদন্তের সময় AIIMS কল্যাণীর বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরাও উপস্থিত ছিলেন। ময়নাতদন্তের পুরো প্রক্রিয়ার ভিডিওগ্রাফিও করা হয়েছে। এদিকে, অর্জুন চৌরাসিয়ার রহস্যমৃত্যুর তদন্তভার হাতে নিয়েছে কলকাতা পুলিশের হোমিসাইড শাখা। লালবাজারের গোয়েন্দারা কাশীপুর থেকে যে জায়গায় তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে তা পরিদর্শন করেছেন। সেখান থেকে অনেক নমুনা নেওয়া হয়েছে। থ্রিডি ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে পুরো মামলাটি তদন্ত করছে হত্যা শাখা। এলাকায় বসানো হয়েছে সিটিভি ক্যামেরা। তারা সেই রেলওয়ে কোয়ার্টারের দৈর্ঘ্য-প্রস্থ-উচ্চতা পরিমাপ করেন।


উল্লেখ্য, এই সময় বঙ্গ সফরে এসেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। দলীয় কর্মীর মৃত্যুর পর তাড়াহুড়ো করে সব কর্মসূচি পাল্টে শুক্রবার কাশীপুরে পৌঁছান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। অমিত শাহ বলেন, “বিজেপি যুব মোর্চা কর্মী অর্জুন চৌরাসিয়াকে নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে। আমরা বাংলার সর্বত্র রাজনৈতিক সহিংসতা দেখতে পাই। এখানে সর্বত্র প্রতিহিংসার রাজনীতি চলছে। বিরোধী দলের কর্মীদের শিকার করে হত্যা করা হচ্ছে। ভারতীয় জনতা পার্টি সহিংসতার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না বা ভয় পায় না। আমরা অর্জুন চৌরাসিয়ার বিচার চাই। এর পেছনে যারা আছে তাদের কঠোর শাস্তির দাবী জানাচ্ছি।”

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad