চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে কালো জিরে - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 11 May 2022

চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে কালো জিরে


ডায়াবেটিস  আজকাল সবচেয়ে সাধারণ রোগে পরিণত হয়েছে , প্রধানত ভুল খাদ্যাভ্যাস এবং দুর্বল জীবনযাত্রার কারণে। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের খাবারের প্রতি বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে। অন্যদিকে, চিনির রোগীরা রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে ওষুধের সাহায্য নেন। তবে ওষুধ ছাড়াও কিছু ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা যায়। এই রেসিপিগুলির মধ্যে একটি হল কালো জিরে। 


ডায়াবেটিসের জন্য কালো জিরে


অনেক কিছুর সঙ্গে টেম্পারিংয়ের পরে আপনি নিশ্চয়ই খুব ছোট দেখতে কালো মৌরি খেয়েছেন। কিন্তু আপনি কি জানেন যে ছোট দেখতে মৌরিও সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী? তা না হলে চলুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণ করে কালো জিরা। এছাড়াও জেনে নিন কীভাবে এটি খেলে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকবে। 


খাবারের স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি সুগার রোগীদের জন্যও কালো জিরে খুবই উপকারী। এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যায়, যা টাইপ 2 চিনির জন্য খুবই উপকারী। অনেক গবেষণায় দেখা গেছে, ডায়াবেটিস রোগীরা যদি খাবারে মৌরি ব্যবহার করেন তাহলে তাদের রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকবে। 


ডায়াবেটিস রোগীদের এই ৩ উপায়ে কালো জিরে ব্যবহার করা উচিত 

প্রথম উপায়

প্রথমে কালো জিরের বীজ ভালো করে গুঁড়ো করে নিন। তারপর এই বীজগুলি এক গ্লাস জলে রাখুন এবং তারপর ধীরে ধীরে এই জল পান করুন। এটা নিয়মিত করলে আপনার অনেক উপকার হবে।


দ্বিতীয় উপায়

এজন্য প্রথমে এক গ্লাস জলে এক চামচ মৌরি ফুটিয়ে নিন। এরপর এই মৌরি জলের সাথে পান করুন। এতে করে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।


তৃতীয় উপায়

দুধ ছাড়া কালো চা তৈরি করুন। এই চায়ে আধা চা চামচ মৌরি তেল যোগ করুন এবং তারপর আবার গরম করুন। এখন প্রতিদিন সকালে এবং রাতে ঘুমানোর আগে এই চা পান করুন। এতে আপনি সুবিধা পাবেন। 


কালো জিরের অন্যান্য উপকারিতা

ওজন কমাতে সহায়ক

আপনি যদি আপনার ক্রমবর্ধমান ওজন নিয়ে উদ্বিগ্ন হন এবং এটি কমাতে চান তবে আপনি কালো জিরে খেতে পারেন। এর জন্য আধা চা চামচ কালো জিরে তেলের সঙ্গে ২ চা চামচ মধু মিশিয়ে হালকা গরম জলে পান করুন। এতে ওজন কমবে।


কাশি ও হাঁপানিতে কার্যকর:

কাশি ও হাঁপানি হলে কালো জিরের তেল দিয়ে বুকে ও পিঠে মালিশ করুন। এছাড়াও, এই তেলটি জলে রেখে বাষ্প করুন। এটি আপনাকে অনেক স্বস্তি দেবে। 


ব্রণ থেকে মুক্তি

পেতে আধা চা চামচ মৌরি তেল ২ চা চামচ লেবুর রসে মিশিয়ে নিন। এবার এই পেস্টটি প্রতিদিন সকালে ও রাতে মুখে লাগান। এতে ত্বক উজ্জ্বল হওয়ার পাশাপাশি কালো দাগ ও ব্রণও কমে যায়। আপনি চাইলে লেবুর পরিবর্তে অ্যাপেল সিডার ভিনেগারও ব্যবহার করতে পারেন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad