গৃহহীন এই ব্যক্তির জীবন বদলে গেল রাতারাতি! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 14 May 2022

গৃহহীন এই ব্যক্তির জীবন বদলে গেল রাতারাতি!

 





কখন কারো ভাগ্য বদলাবে কেউ জানে না। যে সমস্যায় জীবন যাপন করছে সে হঠাৎ সমস্যা কাটিয়ে জীবন পাল্টে দেয়। সম্প্রতি একই ঘটনা ঘটেছে ব্রিটেনের এক যুবকের সঙ্গে, যার জীবন দারিদ্র্যের মধ্যে কাটছিল এবং সে গৃহহীন হয়ে পড়ে। বলা হয় যে ডুবে যাওয়াকে খড়ের সাহায্যে সমর্থন করা হয়, এই ব্যক্তির সঙ্গেও একই ঘটনা ঘটেছিল এবং হঠাৎ সে তার একটি পুরানো ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে জানতে পারে।



 ডেইলি স্টারের রিপোর্ট অনুযায়ী, ২৫ বছর বয়সী ব্র্যান্ডন মারবেক্স ২২ বছর বয়স পর্যন্ত গৃহহীন ছিলেন। তার থাকার কোনো জায়গা ছিল না এবং তিনি দারিদ্র্যের মধ্যে জীবন পার করছিলেন।  একটা সময় এসেছিল যখন তার কাছে থাকার সব টাকা ফুরিয়ে যাওয়ার পথে।  তিনি সম্পূর্ণভাবে দরিদ্র হয়ে উঠতে চলেছেন যে তিনি একটি ওয়েবসাইট থেকে জানতে পেরেছিলেন যে তার নামে একটি পুরানো সেভিংস ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট রয়েছে ।


 বহুবছর পূর্বে,


 যখন তিনি মাত্র ১০ বছর বয়সী ছিলেন,  তখন ন্যাটওয়েস্টের মাধ্যমে একটি শিশুদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছিল।  কয়েক বছর পর পরিবার সেটি ভুলে যায়।  তারা ভেবেছিল যে অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং এখন তারা সেটিতে প্রবেশ করতে পারবে না।  ব্র্যান্ডনের ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখেই তার বাবা-মা ওই অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন।  কিন্তু অ্যাকাউন্ট খোলার ১২ বছর পর, যখন ব্র্যান্ডন চারদিক থেকে মার খেয়েছিলেন, তখন তিনি সিদ্ধান্ত নেন যে তিনি সেই অ্যাকাউন্টটি খুঁজে বের করার চেষ্টা করবেন।



 ২৮ হাজার টাকা বের হয়েছে


 হঠাৎ করেই যখন ব্র্যান্ডন ওয়েবসাইট থেকে সেই অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে জানতে পারলেন, তখন তার হুঁশ উড়ে গেল।  তার জন্য সেই হিসাবটি আশার আলো হয়ে এসেছিল।  অ্যাকাউন্টে ছিল ৩০০ পাউন্ড অর্থাৎ প্রায় ২৮ হাজার টাকা ছিল ।  মিরর ওয়েবসাইটের সঙ্গে কথা বলার সময়, ব্র্যান্ডন বলেছিলেন যে তার মা প্রতি মাসে ১০ পাউন্ড অর্থাৎ প্রায় ৯৫০ টাকা রাখতেন। মা বহু বছর ধরে এটি করেছিলেন এবং একই অর্থ এতটাই বেড়ে গিয়েছিল যে ব্র্যান্ডনকে তার পরে গৃহহীন থাকতে হয়নি।  টাকা পেতে তার প্রায় ৪ মাস লেগেছিল, কিন্তু সেই টাকা দিয়ে তিনি একটি ভাড়া বাড়ি নেন।




No comments:

Post a Comment

Post Top Ad