কোলন সংক্রমণ রোধ করতে ডায়েটে যোগ করুন এই ৭টি খাবার! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 24 June 2022

কোলন সংক্রমণ রোধ করতে ডায়েটে যোগ করুন এই ৭টি খাবার!


কোলন সংক্রমণ এমন একটি রোগ যার জন্য কোলনের বাইরের অংশটি ফুলে যায় এবং বৃহত অন্ত্রটি সংক্রামিত হয়। দীর্ঘদিন ধরে যদি এই রোগ নিরাময় না হয় তবে এই রোগের সাথে কোলোরেক্টাল ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যায়। কোলন সংক্রমণ এমন একটি সংক্রমণ যা প্রতি বছর হাজার হাজার মানুষকে হত্যা করে। কোলন ইনফেকশনের কারণে, পেটে ব্যথা, ডায়রিয়া, কোষ্ঠকাঠিন্য, পেটের গ্যাস, ক্লান্তি, দুর্বলতা, মল পাসে অসুবিধা এবং জ্বলন্ত সংবেদন অনুভূত হয়। 


ন্যাশনাল সেন্টার ফর বায়োটেকনোলজির তথ্যটিতে দীর্ঘমেয়াদী দূষিত খাবার বা জলের ব্যবহার রয়েছে বলে বিশ্বাস করা হয়। এই রোগটি খাদ্যের সাথে খুব ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত, তাই লোকদের তাদের খাবারের দিকে বেশি মনোযোগ দেওয়া উচিৎ। ডায়েট পরিবর্তন করে আপনি কেবল এই সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেতে পারবেন না তবে পেট সুস্থ রাখতে পারবেন।



তিসির বীজ:


পুষ্টি এবং ফাইবার সমৃদ্ধ ফ্ল্যাক সিড বীজ আপনার কোলনকে স্বাস্থ্যকর রাখবে। এটি আপনার অন্ত্রগুলি সুস্থ রাখে, যার সাহায্যে হজম প্রক্রিয়াটি সুচারুভাবে এগিয়ে চলে। এটি আপনার কোলোনকে টক্সিন থেকে মুক্ত করতে সহায়তা করে এবং আপনার ব্যক্তিগত অংশটিকে সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে।


আপেল: 


আপনি যদি প্রতিদিন একটি আপেল খান তবে আপনি ডাক্তারকে এড়িয়ে যেতে পারবেন। এই বাক্যটি একদম ঠিক। আপেলগুলিতে উচ্চ ফাইবারের পাশাপাশি ক্যান্সার বিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা আপনাকে কোলোন ইনফেকশন থেকে রক্ষা করবে এবং বিষাক্তকরণে সহায়তা করবে।


লবঙ্গ:


লবঙ্গগুলি কেবল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্যেই সমৃদ্ধ নয়, তবে এটি ব্যাকটিরিয়াকে মেরে ফেলার এবং ক্যান্সার থেকে রক্ষা করার জন্যও পরিচিত। যদি আপনি এটি আপনার ডায়েটে অন্তর্ভুক্ত করেন তবে আপনার কোলন থেকে বিষাক্ত পদার্থগুলি মুছে ফেলা হবে এবং আপনি পেটের আলসার বৃদ্ধি থেকেও রোধ করতে সক্ষম হবেন।


অ্যালোভেরা:


অ্যালোভেরা একটি ভাল ডিটক্সাইফায়ার যা কোলনকে সুস্থ রাখে। এটিতে ব্যথা-উপশমকারী বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা অন্ত্রের আবরণ অক্ষুণ্ন রাখে এবং কোলনে থাকা ময়লা পরিষ্কার করে।


পেঁপে খান:


যদি আপনার হজম সঠিকভাবে বজায় না থাকে এবং আপনার কোষ্ঠকাঠিন্য এবং খাবার হজমে অসুবিধা হয়, তবে আপনার পেঁপে খাওয়া উচিৎ। পেঁপে এমন একটি উপকারী ফল যাতে লুব্রিক্যান্ট এবং এনজাইম রয়েছে যা আপনার কোলনকে পরিষ্কার এবং স্বাস্থ্যকর রাখে।



ফাইবার সমৃদ্ধ আম খান:


ফলের রাজা, আম যা বেশিরভাগ লোক খেতে পছন্দ করে, এটি দেহে সঠিক পরিমাণে ফাইবার দেয়। প্রচুর পরিমাণে ফাইবার হজমে সহায়তা করে এবং আপনার কোলনকে পরিষ্কার রাখে।




কুমড়ো বীজ:


ঔষধি গুণে সমৃদ্ধ কুমড়োর বীজ কোলন সংক্রমণ রোধে সহায়তা করে। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য সহ কুমড়োর বীজ মূত্রাশয়কে স্বাস্থ্যকর রাখে। এর ব্যবহারের সাথে অন্ত্রটি পরিষ্কার এবং স্বাস্থ্যকর থাকে।


জলপান করা:


কোলন সংক্রমণ এড়াতে প্রচুর পরিমাণে জল পান করুন। ডায়েটে স্বাস্থ্যকর পানীয় অন্তর্ভুক্ত করুন যেমন দুধ, ফলের রস, দই, বাটার মিল্ক, লেবু ইত্যাদি। 

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad