- press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Thursday, 16 June 2022


কুমড়া খাওয়া অনেক মানুষের খাদ্যের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সবুজ সবজির মধ্যে গণনা করা কুমড়ো স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী বলে মনে করা হয়। সেই সঙ্গে কুমড়ার ব্যবহার স্বাস্থ্যের পাশাপাশি ত্বকের যত্নেও বেশ কার্যকর। পুষ্টিগুণে ভরপুর কুমড়া শুষ্ক ত্বক থেকে স্বাভাবিক ত্বক এবং তৈলাক্ত ত্বক সব ধরনের ত্বকেই ব্যবহার করা যেতে পারে। বিশেষ করে গ্রীষ্মে, আপনি কুমড়োর ফেসপ্যাক ব্যবহার করে সহজেই মুখকে প্রাকৃতিকভাবে উজ্জ্বল করতে পারেন।


কুমড়া শুষ্ক ত্বকে কার্যকর

গরমে কারো কারো ত্বক খুব শুষ্ক হতে শুরু করে। এমন পরিস্থিতিতে কুমড়ার ফেসপ্যাকের সাহায্যে ত্বকের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনতে পারেন। এর জন্য কুমড়া পিষে পেস্ট তৈরি করুন। এবার 2 চামচ কুমড়ার পেস্ট, 1 চামচ দুধ এবং 4 চামচ চিনি মিশিয়ে মিশিয়ে নিন। এই ফেসপ্যাকটি মুখে লাগান। তারপর 15-20 মিনিট পর সাধারণ জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এতে মুখের মৃত ত্বকের কোষ এবং ব্ল্যাকহেডস দূর হবে এবং আপনার ত্বক নরম বোধ করতে শুরু করবে।


স্বাভাবিক ত্বকেও ব্যবহার করে দেখুন

কুমড়ার ফেসপ্যাকটিও সাধারণ ত্বকে উজ্জ্বলতা আনতে একটি অত্যন্ত কার্যকরী রেসিপি। আসুন আমরা আপনাকে বলি যে কুমড়ার ফেসপ্যাক প্রাকৃতিক পাশাপাশি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া মুক্ত। এমন অবস্থায় কুমড়া পিষে কুমড়ার ফেসপ্যাক তৈরি করুন। এতে ১ চা চামচ মধু, ১ চা চামচ দুধ এবং ১ চা চামচ দারুচিনি গুঁড়ো মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই প্যাকটি মুখে লাগান এবং ২০ মিনিট পর ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।


তৈলাক্ত ত্বকে কুমড়োর ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন

, তৈলাক্ত ত্বকের অতিরিক্ত তেল কমিয়ে প্রাকৃতিক গ্লো আনতে কার্যকর প্রমাণিত হতে পারে। এর জন্য কুমড়া পিষে পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টে কিছু আপেল সিডার ভিনেগার এবং ১ চা চামচ চিনি যোগ করুন এবং মেশান। এই পেস্টটি মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই রেসিপিটি ব্যবহার করে, মুখের অতিরিক্ত তেল কমতে শুরু করবে এবং আপনার মুখ উজ্জ্বল হতে শুরু করবে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad