প্রাথমিকেও দুর্নীতি, টেট পাশ না করেই চাকরি! হাইকোর্টে মামলা দায়ের - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 7 June 2022

প্রাথমিকেও দুর্নীতি, টেট পাশ না করেই চাকরি! হাইকোর্টে মামলা দায়ের



SLST, উচ্চ প্রাথমিকের পর এবার প্রাইমারি TET-এও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।  অভিযোগ, পরীক্ষায় পাস না করেই চাকরি পেয়েছেন অনেকে।  তদন্তের দাবীতে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গাঙ্গুলীর আদালতে একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছে।  মঙ্গলবার বিকেলে তৃতীয় মামলার শুনানি হবে।  এর আগে প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তবের আদালতে দুর্নীতি নিয়ে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছিল।



2014 সালের প্রাইমারি টেট নিয়ে বিতর্ক।  দুর্নীতির অভিযোগ ছিল।  অভিযোগ, TET পাশ না করেই শিক্ষকের চাকরি পেয়েছেন সুব্রত মণ্ডল-সহ 86 জন পরীক্ষার্থী।  রমেশ মালিসহ অনেক আবেদনকারী মামলা করেছেন এবং দুর্নীতির তদন্ত দাবী করেছেন।  মামলাকারীর মামলা নথিভুক্ত করার অনুমতি চেয়ে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের কাছে যান।  সময় নষ্ট হলে নথি নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন মামলাকারীর আইনজীবী।  এরপর জরুরি ভিত্তিতে মামলাটি নথিভুক্ত করার অনুমতি দেন বিচারক।  আগামীকাল, বুধবার শুনানি।



এর আগে এফআইআরের বিরুদ্ধে প্রধান বিচারপতির আদালতে একটি পিআইএল দায়ের করা হয়েছিল।  মামলাটি গ্রহণযোগ্য কি না তা নিয়ে এখনও বিতর্ক চলছে।  প্রসঙ্গত, 2014 সালে, রাজ্য সরকার প্রাথমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগের স্বার্থে TET-এর আয়োজন করেছিল।  নিয়োগ করা হয়েছিল।  এবারও ওই পরীক্ষায় দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।



এর আগে এসএসসি দুর্নীতি মামলায় প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতার চাকরি  বাতিল করেছিল আদালত। সেই সঙ্গে জরিমানাকৃত বেতন ফেরত দেওয়ারও নির্দেশ দেন।  অঙ্কিতা মেখলিগঞ্জের ইন্দিরা গার্লস স্কুলে রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষিকা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।  হাইকোর্টের নির্দেশে তাকে স্কুলে প্রবেশে বাধা দেওয়া হয়।  সিদ্দিক গাজীর ক্ষেত্রেও তাই।




এদিকে সোমবার বিচারপতি রাজশেখর মান্থার বেঞ্চ নবম ও দশম শ্রেণিতে শিক্ষক নিয়োগের অভিযোগে একটি মামলার শুনানি করছিলেন।  বিচারপতি মান্থার একটি পর্যবেক্ষণ, যিনি মেধা তালিকা যাচাই-বাছাই করেছেন, প্রকাশ করেছেন যে 200-এর মধ্যে থাকা প্রার্থী চাকরি পাননি, যেখানে মেধা তালিকায় 275 নম্বরে থাকা প্রার্থী চাকরি পেয়েছেন।  এরপর তিনি মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে কর্মরত গণিত শিক্ষক সিদ্দিক গাজীর চাকরি বাতিলের নির্দেশ দেন।


No comments:

Post a Comment

Post Top Ad