"স্টিকার লাগানোর ব্যবসা মমতার", কটাক্ষ শুভেন্দুর - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 15 June 2022

"স্টিকার লাগানোর ব্যবসা মমতার", কটাক্ষ শুভেন্দুর



দীর্ঘদিন ধরেই রাজ্যের কেন্দ্রীয় প্রকল্পের নাম পরিবর্তনের অভিযোগ।  এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন সরকারের কাজকে ব্যঙ্গ করলেন বিরোধী দলীয় নেতা শুভেন্দু অধিকারী। বুধবার রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৎপরতা সম্পর্কে তিনি বলেন, এই রাজ্য থেকে নির্দিষ্ট সংখ্যার চেয়ে বেশি ভোট পাবেন এনডিএ প্রার্থী।  গোয়া ও ত্রিপুরার মতো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগ ব্যর্থ হবে বলেও দাবী করেন তিনি।




বিধানসভার স্পিকার বিরোধী দলের নেতা সহ সাতজন বিজেপি বিধায়ককে সাসপেন্ড করেছেন।  সেই কারণেই বিধানসভার বাইরে ধর্না দিচ্ছেন তাঁরা। বুধবার শুভেন্দু অধিকারীকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, "বাংলার বাড়ি বলে কিছু নেই।  প্রকল্পটি কেন্দ্রীয়।  নাম প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা। "  তিনি কটাক্ষ করেন, 'ঢপের চপ মমতা ব্যানার্জির এই ব্যবসা কতদিন চলবে? স্টিকার লাগানোর ব্যবসা মমতার।'



 তিনি সাফ জানিয়ে দেন, 'প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা লিখতে হবে, তাহলেই কেন্দ্রীয় সহায়তা পাবেন।  বিরোধীদলীয় নেতা বলেন, জলজীবন মিশন লিখতে হবে।  তাহলে পুলক রায় টাকা পাবেন।  রাজ্যে দেওয়া নাম 'জলস্বপ্ন' লিখলে টাকা দেওয়া হবে না।'




বুধবার শুভেন্দু অধিকারী আবারও অভিযোগ করেন যে রাজ্য সরকার তিন বছর ধরে কেন্দ্রে পাঠানো টাকার হিসাব দেয়নি।  তিনি জেসিপির মাধ্যমে মাটি কাটা বন্ধেরও দাবী জানান।  তিনি বলেন, পশ্চিমবঙ্গ বন নিগম 42 টাকায় একটি নারকেল গাছ কিনেছে  এবং কিষাণ কল্যাণী ফার্ম MNREGA প্রকল্পের জন্য 32 কোটি টাকার নারকেল গাছ সরবরাহ করেছে।  এ ব্যাপারে বিভাগীয় তদন্ত চলছে।  টাকা আত্মসাতের বিষয়টি পরে তদন্ত করে দেখা হবে।



শুভেন্দু অধিকারী কটাক্ষ করেন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গত 10 বছরে দেশের নেত্রী হওয়ার চেষ্টা করেছেন।  গত রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তিনি মুলায়ম সিং যাদবের কাছে গিয়েছিলেন।  কিন্তু তিনি সামনের গেট দিয়ে ঢুকলেন এবং মুলায়ম সিং যাদব পিছনের গেট দিয়ে চলে গেলেন।  রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থী ঠিক করার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রচেষ্টা বৃথা যাবে বলে দাবী করেছেন শুভেন্দু অধিকারী।


No comments:

Post a Comment

Post Top Ad