দিবালোকে নাবালিকার সঙ্গে অপকর্ম, অভিযুক্তের মধ্যে পুলিশের গাড়ি চালক - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 20 July 2022

দিবালোকে নাবালিকার সঙ্গে অপকর্ম, অভিযুক্তের মধ্যে পুলিশের গাড়ি চালক



কলকাতা সংলগ্ন নিউটাউন এলাকায় বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে যাওয়া এক নাবালিকার গণধর্ষণ।  ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে, যখন নাবালিকা তার বন্ধুদের সাথে সাইকেল নিয়ে বেড়াতে গিয়েছিল।  অভিযোগ রয়েছে, বন্ধুদের প্রথমে লাঞ্ছিত করা হয় এবং পরে জোর করে গণধর্ষণ করা হয়।  অভিযুক্তদের মধ্যে পুলিশের গাড়ির চালকও রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।  দিবালোকে এমন ঘটনার পর পুলিশ মহলে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।  নির্যাতিতার অভিযোগের পর তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়ে তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  ধৃতদের মধ্যে পুলিশের গাড়ির চালকও রয়েছে।



 পুলিশের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, মেয়েটি তার বন্ধুদের সঙ্গে সাইকেল চালাতে গিয়েছিল।  তারা ইকো পার্কের কাছে একটি সিমেন্ট কারখানার সামনে দাঁড়িয়ে ছিল।  হঠাৎ তিন যুবক তার সামনে এসে শ্লীলতাহানি শুরু করলে বন্ধুরা আপত্তি করলে তাকে বেধড়ক মারধর করে।  এরপর সে মেয়েটিকে কাছের একটি ঝোপে টেনে নিয়ে যায় এবং তাকে 'গণধর্ষণ' করে।




গণধর্ষণের ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার নিউটাউন এলাকায়। ১৫ বছরের নাবালিকা সাইকেল নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে ইকো পার্ক এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছিল।  এ সময় বাকবিতণ্ডা হয় বলে জানা গেছে।  এরপর বন্ধুদেরকে মারধর করে ঝোপে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে।  বিষয়টি এখানেই শেষ হয়নি।  অভিযুক্তরা গণধর্ষণের আপত্তিকর ছবিও তুলেছে।  অভিযুক্তের খপ্পর থেকে মেয়েটি ছাড়া পেয়ে ফোন থেকে তার বন্ধুর মাকে ফোন করে পুরো বিষয়টি জানায়।  পরে ইকো পার্ক থানায় গিয়ে অভিযোগ জানান।



 নির্যাতিতা মেয়ে অভিযুক্তদের কথোপকথন শোনেন এবং পুলিশ অফিসারদের কাছে তাদের নাম জানান।  তদন্তের পর অভিযুক্ত তিনজনকেই গ্রেফতার করে পুলিশ।  পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত তিনজনের মধ্যে একজন পুলিশের গাড়ির চালক।  তাদের মধ্যে তিনজনকে বুধবার গ্রেফতার করে বারাসত আদালতে তোলা হবে।  এই প্রসঙ্গে বিজেপির স্থানীয় রাজ্য মুখপাত্র রাজশ্রী লাহিড়ী বলেন, “আমরা বারবার বলে আসছি যে এই ঘটনা রাজ্য জুড়ে ঘটছে।  ২১শে জুলাইয়ের আগে কেন এমন হবে?  রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী একজন মহিলা, আবারও রাজ্যে মহিলারা নিরাপদ নয়।"  নিউটাউনের এক স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, 'আমরা নিরাপদ বোধ করছি না, বাড়ি থেকে বের হলে মনে হয় কোথাও কোনও দুষ্কৃতী দাঁড়িয়ে আছে।'


No comments:

Post a Comment

Post Top Ad