ইন্দো-চীন সীমান্ত থেকে নিখোঁজ ১৮ জন শ্রমিক, উদ্ধার একটি মৃতদেহ - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 19 July 2022

ইন্দো-চীন সীমান্ত থেকে নিখোঁজ ১৮ জন শ্রমিক, উদ্ধার একটি মৃতদেহ



অরুণাচল প্রদেশের কুরুং কুমে জেলায় ভারত-চীন সীমান্তে একজন শ্রমিক মারা গেছে এবং 18 জন নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে।  জেলা প্রশাসক বেঙ্গিয়া নিঝি জানান, তারা সবাই এখানে একটি সড়ক প্রকল্পে কাজ করছিলেন এবং 5 জুলাই থেকে নিখোঁজ রয়েছেন।  তিনি জানান, শ্রমিকরা সবাই আসামের বাসিন্দা।




 জেলা প্রশাসক বলেন, “রাস্তা তৈরির জন্য ঠিকাদার আসাম থেকে 19 জন শ্রমিক এনেছিল। এই এলাকাটি জেলা সদর থেকে 150 কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। আমরা 13 জুলাই তথ্য পেয়েছিলাম যে সমস্ত শ্রমিক সাইট থেকে নিখোঁজ ছিল। এর পরেই, আমরা একটি অনুসন্ধান অভিযান শুরু করি। আশেপাশের বন ও অন্যান্য রাস্তায় তল্লাশি করেও তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি। সোমবার ফুরাক নদী থেকে ওই শ্রমিকদের একজনের দেহ উদ্ধার করা হয়।"




 কুমি নদীতে ডুবে সব শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।  মৃতদেহ উদ্ধারের পর এই আশঙ্কা আরও জোরদার হয়েছে।  বর্তমানে উদ্ধার কাজ চলছে।  কখন এই শ্রমিকরা নদীতে ডুবে গেছে তা জানা যায়নি।  তার পরিবারের সদস্যদের কাছেও কোনও তথ্য নেই।  বলা হচ্ছে, কয়েকদিন আগে তারা সবাই পায়ে হেঁটে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন।  পথে পড়ে কুমি নদী।  পার হতে গিয়ে নিশ্চয়ই দুর্ঘটনা ঘটেছে।



 সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, এই শ্রমিকরা ঈদ উপলক্ষে বাড়ি যেতে চেয়েছিলেন।  এ জন্য তিনি ঠিকাদারের কাছে ছুটি চাইলেও তিনি রাজি হননি।  এরপর পায়ে হেঁটে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হন এসব মানুষ।  এখন আনুষ্ঠানিকভাবে তার নিখোঁজের খবর সামনে এসেছে।  পুলিশ প্রশাসন বলছে, নিখোঁজ শ্রমিকদের খোঁজ চলছে।



 দুর্ঘটনার পর বেশ কয়েকদিন পেরিয়ে গেলেও তাদের অনেকের মরদেহ খুঁজে না পাওয়ারও আশঙ্কা করা হচ্ছে।  তবে এখনই নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না।  জানা গিয়েছে, অতীতে উত্তর-পূর্বে ভারী বৃষ্টি হয়েছে।  এ কারণে অরুণাচল প্রদেশ, আসাম ও মিজোরামের অনেক এলাকায় বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।  

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad