'পার্থর পারফরমেন্সের কাছে আমি চুনোপুঁটি',‌ বিস্ফোরক মদন - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 29 July 2022

'পার্থর পারফরমেন্সের কাছে আমি চুনোপুঁটি',‌ বিস্ফোরক মদন


"পার্থ যে পারফরমেন্স দেখিয়েছে, তার কাছে আমি চুনোপুঁটি। এছাড়াও পার্থ চট্টোপাধ্যায় যা করেছেন, তা পাপ," বিস্ফোরক মদন মিত্র। সর্বভারতীয় এক বেসরকারি সংবাদমাধ্যমে একান্ত সাক্ষাৎকারে এই মন্তব্য করেন কামারহাটির বিধায়ক তথা তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। 


মদন মিত্র বলেন, পার্থ চট্টোপাধ্যায় যা করেছেন, তা পাপ। এত মানুষের চোখের জল। পাশাপাশি, পার্থ ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে যে তিনি চিনতেও, সেকথাও অস্বীকার করেননি মদন মিত্র। তিনি বলেন,‌ 'অর্পিতাকে আমি অনেক দিন থেকে চিনি, আমার এলাকার ভোটার।'


তবে মদন মিত্রর সাফ কথা, যারা দুর্নীতি করে, রাতের অন্ধকারে লুকিয়ে টাকা রাখে, তাদের সঙ্গে মদন মিত্রর যোগাযোগ নেই। মদন মিত্র বলেন, 'কে কোথায় টাকা রাখবে, কে কোথায় সম্পর্ক করবে, তা তো‌ আমি বলতে পারব না। তবে, অর্পিতাকে আমি দেখেছি, আমার কাছে কখনও অন্যরকম কিছু লাগেনি। আমি শুনেছিলাম, ও পার্থর খুব ঘনিষ্ঠ। আর আমার সঙ্গে দেখা হলেও ও খুব পার্থ দা'- পার্থ দা করত।'


এই ঘটনার পর মদন মিত্র কী নতুন নতুন বান্ধবী করা নিয়ে সতর্ক হচ্ছেন? মদন বলেন,‌ 'একদমই না।' 'কোনও বান্ধবী যদি আমাকে ডেকে খাওয়ায়, এতে অন্যায়ের কি আছে?' পাল্টা প্রশ্ন মদনের। 


আপনি কী এখনও এক নম্বর, নাকি পার্থ দা টপকে গিয়েছে? এমন প্রশ্নের উত্তরে মদন জানান, "আমি এ ব্যাপারে পার্থর সঙ্গে কম্পিটিশনে নামতে পারব না। কারণ পার্থ যে পারফরমেন্স দেখিয়েছে, তার কাছে আমি চুনোপুঁটি।"


প্রসঙ্গত, নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গ্ৰেফতার হয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও তার ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। অর্পিতার দুটি ফ্ল্যাট থেকে ৫০ কোটি টাকা, সোনা-দানা, জমির দলিল ইত্যাদি অনেক কিছু উদ্ধার হয়েছে। দুজনেই ইডি হেফাজতে রয়েছেন। জোর কদমে চলছে তদন্ত। এরই মধ্যে ইডি-র তদন্তে, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ৬ জনেরও বেশি বান্ধবীর নাম সামনে এসেছে। 


ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, অর্পিতার আদলে প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় প্রত্যেক বান্ধবীকে দামি উপহার, গাড়ি, ফ্ল্যাট এবং নগদ টাকা দিতেন। এখন পার্থের ঘনিষ্ঠ সব মহিলাই ইডি-র র্যাডারে।  


আরও জানা গিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও পার্থর বান্ধবীরা বাংলাদেশেও সম্পত্তি কিনেছিলেন। ইডি আধিকারিকরা এখন এই সমস্ত সম্পত্তির তদন্ত শুরু করেছেন। প্রয়োজনে সমস্ত মহিলাদের সম্পত্তি সিলও করা হতে পারে, বলে ইডি সূত্রে খবর।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad