নূপুরকে সমর্থন! যুবককে ঘিরে ধরে ধারালো অস্ত্রের কোপ - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Thursday, 21 July 2022

নূপুরকে সমর্থন! যুবককে ঘিরে ধরে ধারালো অস্ত্রের কোপ

বিজেপির বরখাস্ত হওয়া মুখপাত্র নূপুর শর্মার পক্ষে বিবৃতি দেওয়ার জন্য যুবকের ওপর প্রাণঘাতী হামলার অভিযোগ। বুধবার মধ্যপ্রদেশের আগর মালওয়ায় ১৩ জন লোক মিলে এক ২৫ বছর বয়সী যুবকের ওপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে আক্রমণ করে, যাতে তিনি গুরুতর আহত হন। পুলিশের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।



আগর মালওয়ার পুলিশ সুপার রাকেশ সাগর বলেছেন, "এফআইআরে উল্লেখ করা হয়েছে যে, আক্রান্ত আয়ুষ জাদম নূপুর শর্মাকে সমর্থন করেছিলেন, তাই তার ওপর হামলা করা হয়েছে।" তিনি এও বলেন, "যুবক নূপুর শর্মাকে সমর্থন করেছিলেন কি না, সেটা অনুসন্ধানের বিষয়।"


পুলিশ সুপার বলেন, "পুলিশ এই মামলায় দুই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে এবং বাকি অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।" তিনি বলেন, এই হামলায় আয়ুষের মাথায় আঘাত লেগেছে। এদিকে আগর মালওয়া কোতোয়ালি থানার ইনচার্জ হরিশ জেজুরিকর বলেছেন, "আগার মালওয়ার বাসিন্দা ২৫ বছর বয়সী আয়ুষ জাদম এদিন টোল ট্যাক্স ব্লক দিয়ে মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন। তখন ১৩ জন অভিযুক্ত অমল, আরবাজ, আগর আসিফ, সরফরাজ, চিকি, আব্বু, আমান, সোহেল, মুন্না, সালমান, ফিরদোস, সমীর ও সাজিদ- মালওয়ার বাসিন্দা সবাই আয়ুষকে থামিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায়।"


থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক বলেন, "অভিযোগকারী আশুতোষ সোনির রিপোর্টে, পুলিশ এই ১৩ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৭, ১৪৭, ১৪৮, ১৪৯, ২৯৪ এবং ৫০৬ ধারায় মামলা দায়ের করেছে৷ অভিযুক্ত দুই অভিযুক্ত আব্বু ও আরবাজকে ধরা হয়েছে। তাদের ধরে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। বাকিদের খোঁজ চলছে।"


তিনি বলেন, গুরুতর আহত আয়ুষকে জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, সেখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাকে উজ্জয়নে রেফার করা হয়। তিনি বলেন, মামলার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালেও ততক্ষণে অভিযুক্তরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছে। ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থলে বিপুল জনতা জড়ো হয় এবং হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের পক্ষ থেকে কোতোয়ালি থানা ও পুলিশ সুপারের কার্যালয় ঘেরাও করে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবীতে মামলা দায়ের করা হয়।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad