'শারীরিকভাবে ক্লাস না করলে তাকে ইঞ্জিনিয়ার বলা যাবে না': হাইকোর্ট - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Thursday, 21 July 2022

'শারীরিকভাবে ক্লাস না করলে তাকে ইঞ্জিনিয়ার বলা যাবে না': হাইকোর্ট


'যে পড়ুয়ারা শারীরিকভাবে ক্লাসে অংশ নেয়নি তাদের ইঞ্জিনিয়ার বলা যাবে না', এমনই মন্তব্য পাঞ্জাব-হরিয়ানা হাইকোর্টের। আদালত হরিয়ানা পুলিশ হাউজিং কর্পোরেশনের আদেশ স্থগিত করেছে, যেখানে দূরশিক্ষার মাধ্যমে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স করা ব্যক্তিদের এক্সিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার পদে উন্নীত করা হয়েছিল। পাঞ্জাব-হরিয়ানা হাইকোর্ট বলেছে যে, 'একজন ব্যক্তি যিনি কোর্সে অংশ নেন না, শারীরিকভাবে ক্লাস করেন না, যাকে ব্যবহারিক প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়নি, তাকে ইঞ্জিনিয়ার বলা যাবে না।'


বিচারপতি অনুপিন্দর সিং গ্রেওয়ালের একটি বেঞ্চ পর্যবেক্ষণ করেছে যে এটি মেনে নেওয়া কঠিন যে, একটি দূরশিক্ষার প্রোগ্রামের অধীনে নেওয়া ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি, নিয়মিত ক্লাসের দ্বারা নেওয়া ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রির সমতুল্য হতে পারে।  ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রিতে থিওরি প্রোগ্রামটি বেশ কঠিন, এর পরে শিক্ষার্থীদের ব্যবহারিক প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। যারা শারীরিকভাবে ক্লাসে উপস্থিত হন না, তারা প্র্যাকটিক্যাল  থেকেও বঞ্চিত হন। তাহলে তাকে কীভাবে ইঞ্জিনিয়ার বলা যায়? আমরা যদি এইভাবে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে দূরশিক্ষা ডিগ্রি গ্রহণ করতে থাকি, তাহলে সেই দিন বেশি দূরে নয়, যখন দূরশিক্ষার অধীনে এমবিবিএস ডিগ্রিও পাওয়া যাবে, যার পরিণতি হবে মারাত্মক।'


আদালত এও বলেছে যে, দূরশিক্ষার অধীনে এমবিবিএস ডিগ্রি নেওয়ারা অসুস্থ ব্যক্তিদের চিকিত্সা করবে, তা ভাবতেও ভয় লাগে। প্রকৌশলের কাজ দেশের অবকাঠামো উন্নয়নের ভিত্তি। এই ধরণের অসাবধানতা কেবল সাধারণ মানুষের জীবনকে বিপন্ন করবে না, এর ফলে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব ক্ষতিও হবে।  


বেঞ্চ একটি মামলার শুনানি করছিল যেখানে আবেদনকারী নরেশ কুমার এবং অন্যরা বিনোদ রাওয়ালকে নির্বাহী প্রকৌশলী পদে পদোন্নতি দিয়ে ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ তারিখের আদেশ বাতিল করার আবেদন করেছিলেন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad