স্কুলের ভেতরেই ছাত্রীর সঙ্গে জঘন্য আচরণ! অভিভাবকদের চটির মুখোমুখি শিক্ষক - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 2 July 2022

স্কুলের ভেতরেই ছাত্রীর সঙ্গে জঘন্য আচরণ! অভিভাবকদের চটির মুখোমুখি শিক্ষক


জলপাইগুড়ি: তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে স্কুলের ভেতরেই শ্লীলতাহানীর অভিযোগ উঠল স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে। উত্তেজিত হয়ে অভিভাবকরা জুতোপেটা করলেন শিক্ষককে। ঘটনা ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ধূপগুড়ির বামনি ব্রিজ এলাকার পূর্ব মাগুরমাড়িতে। 


নিম্ন বুনিয়াদি বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে ওই শিক্ষক দীর্ঘদিন ধরে শ্লীলতাহানি করে আসছে বলে অভিযোগ। এমনকি ভয়ে স্কুলে আসা বন্ধ করে দেয় পড়ুয়া। এই ঘটনার কথা জানাজানি হতেই শনিবার স্থানীয়রা স্কুলের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। এরপর একসময় শিক্ষকদের রুমের ভেতরে ঢুকে অভিযুক্ত শিক্ষককে জুতোপেটা করা হয় এবং লাঠি-ঝাড়ু নিয়ে তুমুল বিক্ষোভ দেখায় অভিভাবকরা। ঘটনা ঘিরে ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয় এলাকায়।


খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় ধূপগুড়ি থানার পুলিশ বাহিনী। পুলিশকে ঘিরেও বিক্ষোভ দেখান অভিভাবক ও পরিবারের সদস্যরা। অভিযুক্তের শাস্তির দাবী জানানো হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে নামানো হয় র্যাফ। দীর্ঘক্ষণ প্রচেষ্টার পর স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধানের হস্তক্ষেপে অভিযুক্ত শিক্ষককে পুলিশি নিরাপত্তা দিয়ে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। 


স্কুলের অন্য শিক্ষক জানান, 'আমাদের এখানে যিনি পার্শ্বশিক্ষক আছেন, তার বিরুদ্ধে অভিভাবকরা লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন, 'আমি বলেছি সত্যতা যাচাই করে পদক্ষেপ করা হবে।' এছাড়াও তিনি বলেন, এসআই ও পুলিশকে গোটা ঘটনা জানানো হয়েছে। 


ছাত্রীর পরিবার এক সদস্যার অভিযোগ, 'এই ঘটনা অনেক দিন থেকেই ঘটে আসছে। গরমের ছুটির আগেও ও স্কুলে আসতে চাইত না। আমরা জোর করে পাঠাতাম। স্কুল খোলার পর বৃহস্পতিবার অন্য এক পড়ুয়ার থেকে বিষয়টি জানতে পেরে ওকে চেপে ধরতেই এই কথা জানায় পড়ুয়া।' অভিযুক্তের শাস্তির দাবী জানান তিনি। 


যদিও নিজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত শিক্ষক। তাঁর দাবী, তাঁকে ফাঁসানো হচ্ছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad