পার্থ-অর্পিতাকে ফের ইডি হেফাজতের নির্দেশ! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Monday, 25 July 2022

পার্থ-অর্পিতাকে ফের ইডি হেফাজতের নির্দেশ!


এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী তথা শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ক এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে ৩ আগস্ট পর্যন্ত ইডি রিমান্ডে পাঠানো হয়েছে। বিশেষ আদালত এই নির্দেশ দিয়েছে। প্রতি ৪৮ ঘণ্টা পর পার্থ চ্যাটার্জির মেডিক্যাল চেকআপ করারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আদালতের তরফে। সোমবার বিশেষ আদালতে এ বিষয়ে শুনানি হয়। এই শুনানির সময়, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ১৪ দিনের হেফাজত চেয়েছিল, আর অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের জন্য ১৩ দিনের হেফাজত চেয়েছিল।


আগামী ৩ অগাস্ট পর্যন্ত দুজনকেই ইডি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। উল্লেখ্য, এদিনই ভুবনেশ্বর AIIMS মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে ফিট বলে ঘোষণা করেছে। সোমবার পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে ভুবনেশ্বরে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। এরপর তাকে সম্পূর্ণ ফিট ঘোষণা করেছে AIIMS। আদালতে ইডি তার রিপোর্ট পেশ করে বলেছে, মন্ত্রী তার প্রভাবের সুযোগ নিচ্ছেন। তবে, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী ইডি-র ১৪ দিনের হেফাজতের দাবীর বিরোধিতা করেছিলেন।


ইডি তরফের আইনজীবী বলেন, এটি একটি গুরুতর কেলেঙ্কারি এবং অনেক যোগ্য প্রার্থীকে বঞ্চিত করা হয়েছে, ষ ইডি অনুসন্ধান করেছে। প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী ও তার ঘনিষ্ঠ সহযোগী অর্পিতা মুখার্জির বাড়ি থেকে ২১ কোটি টাকা পাওয়া গেছে। যৌথভাবে জমি কেনা হয়েছে। এটি প্রমাণ করে যে তাদের মধ্যে কোন ধরনের সম্পর্ক ছিল। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে নথিপত্র উদ্ধার করা হয়েছে। আপত্তিকর প্রকৃতির বেশ কয়েকজন পরীক্ষার্থীর প্রবেশপত্র উদ্ধার করা হয়েছে।


পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের একটি ভিডিও রেকর্ডিং পেশ করা হয়, যেখানে তিনি এইমস-এ যেতে অনিচ্ছুক ছিলেন। ইডি-র আইনজীবী জানিয়েছেন, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ১৫ বছর ধরে ডায়াবেটিস রয়েছে। সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণে। কোনও সক্রিয় হস্তক্ষেপ প্রয়োজন নেই, স্বাভাবিক চিকিৎসা চালিয়ে যেতে পারেন। তিনি অসুস্থতার অজুহাত দিচ্ছিলেন। পশ্চিমবঙ্গের একটি হাসপাতালে নিজের প্রভাব কাজে লাগানোর চেষ্টা করেন। তার এমন কোনও রোগ নেই। পদের সুবিধা নিয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় রীতিমতো সমস্ত ব্যবস্থাকে মজা বানিয়ে রেখেছেন। কেলেঙ্কারিটি ভয়ঙ্কর। প্রভাবশালী অভিযুক্তদেরও নজরে রাখতে হবে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad