মমতাকে ফোন ধনখড়ের! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 20 July 2022

মমতাকে ফোন ধনখড়ের!


মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোন করে তাঁর সমর্থন চাইলেন এনডিএ-এর উপরাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী তথা রাজ্যের প্রাক্তন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।


উল্লেখ্য তৃণমূল কংগ্রেস উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে সম্পূর্ণ নীরবতা পালন করেছে। এমনকি বিরোধী দলগুলির একটি সাধারণ প্রার্থীর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য দিল্লীতে এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ারের বাড়িতে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কোনও টিএমসি প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন না এবং মার্গারেট আলভার প্রার্থিতা ঘোষণা থেকে তার মনোনয়ন পর্যন্তও কোনও টিএমসি প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন না। এদিকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কালীঘাটের বাসভবনে সাংসদদের বৈঠক ডেকেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। ওই বৈঠকে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচন সংক্রান্ত মতামত দেবেন নেত্রী।


এনডিএ বাংলার প্রাক্তন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে ভাইস-প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী করেছে, অন্যদিকে কংগ্রেস সহ বিরোধী দলগুলি প্রাক্তন কংগ্রেস নেতা মার্গারেট আলভাকে প্রার্থী করেছে।


মিডিয়া রিপোর্ট অনুসারে, তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র এবং রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ কুণাল ঘোষ জানিয়েছেন যে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোন করেছিলেন জগদীপ ধনখড়। তিনি বলেন, ধনখড় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বলেছেন, ভিপি সিং সরকারের সময় সিপিএম বারবার নিষেধ করা সত্ত্বেও, আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখতে গিয়েছিলাম, যখন তিনি আহত হয়েছিলেন। তিনি এও বলেন, "মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ব্যক্তিগত পর্যায়ে খুবই সৎ, কিন্তু প্রশাসনিক কাজে আমার কথা শোনেন না।" 


প্রসঙ্গত, পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল থাকাকালীন জগদীপ ধনখড় এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মধ্যে বিবাদ প্রায়দিনই সংবাদ শিরোনাম জায়গা করে নিত। ধনখড়ের ক্রমাগত সমালোচনায় ক্ষুব্ধ হয়ে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে তাঁর ট্যুইটার অ্যাকাউন্টেও ব্লক করেন এবং বিধানসভায় মমতা ব্যানার্জির সরকার তার বিরুদ্ধে একটি নিন্দা প্রস্তাব পাস করে। পাশাপাশি তাঁর অপসারণের দাবীতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠিও লেখেন।


অন্যদিকে, সূত্রে খবর, বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তার দল তৃণমূল কংগ্রেসকে এনডিএ প্রার্থী জগদীপ ধনখড়কে সমর্থন করার আহ্বান জানান। সুকান্ত মজুমদার বলেন, “ধনখর রাজ্যের সর্বকালের সেরা রাজ্যপাল ছিলেন। তিনি গণতন্ত্র ও সংবিধানের অভিভাবক। তৃণমূলের উচিৎ এগিয়ে এসে তাঁকে সমর্থন করা।"  



No comments:

Post a Comment

Post Top Ad