২১ জুলাইয়ের বদলে অন্য দিন শুভেন্দুকে সভা করার পরামর্শ আদালতের - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 19 July 2022

২১ জুলাইয়ের বদলে অন্য দিন শুভেন্দুকে সভা করার পরামর্শ আদালতের



কলকাতা হাইকোর্টে ধাক্কা খেলেন বাংলার বিজেপি বিধায়ক তথা বিরোধী দলের নেতা শুভেন্দু অধিকারী।  রাজ্যের বিরোধী দলের নেতা তথা বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী 21শে জুলাই হাওড়া জেলার উলুবেড়িয়ায় একটি সভা করার অনুমতি চেয়েছিলেন।  পুলিশ অনুমতি দেয়নি।  এর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছিল, কিন্তু কলকাতা হাইকোর্ট বিজেপিকে 21 জুলাইয়ের পরিবর্তে অন্য কোনও দিন সভা করার পরামর্শ দেয়।  বিচারপতি মৌসুমী ভট্টাচার্য বিজেপিকে বুধবার বৈঠকের সমস্ত বিবরণ দিতে বলেছেন।  অর্থাৎ 21শে জুলাইয়ের একদিন আগে বিজেপিকে সম্পূর্ণ তথ্য দিতে বলা হয়েছে।  উলুবেড়িয়ায় তাদের কর্মসূচিতে কোন কোন নেতা উপস্থিত থাকবেন তা জানাতে বলা হয়েছে বিজেপিকে।  একইসঙ্গে ওই বৈঠকে কত লোক জড়ো হতে পারে তার আগাম হিসেব দিতে হাইকোর্টকে নির্দেশ দেন বিচারক।





 21শে জুলাই উলুবেড়িয়ায় সভাটি মূলত রাজ্যের বিধায়ক এবং বিরোধী দলের নেতা শুভেন্দু অধিকারী আহ্বান করেছিল, কিন্তু পুলিশ সমাবেশের অনুমতি না দেওয়ায় বিজেপি কলকাতা হাইকোর্টে একটি মামলা দায়ের করেছিল।  21শে জুলাই, কলকাতায় তৃণমূলের একটি শহীদ সভা রয়েছে, যেখানে লক্ষাধিক লোক উপস্থিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।



মঙ্গলবার এ বিষয়ে আদালতে শুনানি হয়।  শুনানির সময় বিচারপতি ভট্টাচার্য বিজেপির আইনজীবীকে বলেন, "এই বৈঠক কেন শুধু 21শে জুলাই হতে হবে?  22 বা 23 জুলাই বিজেপি সভা করতে পারে।  কেন 21 জুলাই গুরুত্বপূর্ণ?"  সেই প্রশ্নের উত্তর দিতে সময় চেয়েছেন বিজেপির আইনজীবী।  বিচারক তাকে বেলা 3টা 20মিনিট পর্যন্ত সময় দেন।  পরে মামলার শুনানি শুরু হলে বিজেপির আইনজীবী বলেন, "দিল্লী থেকে অনেক নেতা আসছেন।  তাদের ওই তারিখের কথা বলা হয়েছে।  বৈঠকের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।  সেজন্য 21শে জুলাই সভা করা প্রয়োজন। " আদালতে বিজেপির আইনজীবীর যুক্তি ছিল, রাজ্যে যদি একটি রাজনৈতিক দল জনসভা করবে, তবে অন্য দল পারবে না?  জবাবে হাইকোর্টের বিচারক তাকে বলেন, শুধু একটি রাজনৈতিক দল কর্মসূচি করবে বলে অন্যরা পারবে না, তা হতে পারে না।  একইভাবে সেদিনের প্রকৃত পরিস্থিতিও মূল্যায়ন করতে হবে।



 বিজেপির আইনজীবী আরও জানান, ওই সভায় প্রায় 2,000 জন লোক উপস্থিত হবেন।  ওই দিন অন্যান্য রাজনৈতিক দলের বৈঠক হলেও তার কোনও প্রভাব পড়বে না।  বিজেপি বিচারককে বলেছে যে 15 দিন আগে বৈঠকের অনুমতি চাওয়া হয়েছিল, কিন্তু অনুমতি দেওয়া হয়নি।  বিজেপির আইনজীবী বলেন, “যদি প্রয়োজন হয়, আমাদের সন্ধ্যা 6টায় সভা করার অনুমতি দেওয়া উচিৎ।  এতে কোনও সমস্যা নেই।"  কিন্তু বিচারক বিজেপির আইনজীবীর এই বক্তব্যের পাল্টা জবাব দিয়ে বলেন, 'আপনার এই কর্মসূচিতে কি দিল্লী থেকে নেতারা আসছেন?  আপনারা জানেন যে সেদিন কলকাতায় একটি বড় জনসভা হয়।  শহরের যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে।  কলকাতা বিমানবন্দর থেকে হাওড়ার অনুষ্ঠানে আপনার নেতারা কীভাবে যাবেন? আপনারা কি উড়ে যাবেন?"

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad